পরিকল্পনা তুলে রেখেছি পরিবারের জন্য, আমার ঈদ সামনে : পরীমনি

মাসুম আওয়াল
মাসুম আওয়াল মাসুম আওয়াল , স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশিত: ০৩:০৬ পিএম, ২৭ মে ২০২০

একসময় প্রচুর তথাকথিত বাণিজ্যিক ঘরনার সিনেমায় অভিনয় করেছেন পরীমনি। তবে গত কয়েক বছর ধরে হাঁটছেন একটু ভিন্ন পথেই। বছর দুয়েক আগে গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‌‘স্বপ্নজাল’ সিনেমায় অভিনয়ের মধ্যে দিয়ে ক্যারিয়ারে নতুন বাঁক আসে পরীর। মাঝে হাতে গোনা কয়েকটি সিনেমায় নাম লেখান। এরমধ্যে আছে ‘বিশ্বসুন্দরী’, ‘১৯৭১ : সেই সব দিন’। দুই মাস আগে সর্বশেষ ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন। করোনাভাইরাসের কারণে বর্তমানে ঘরবন্দী হয়েই কাটছে সময়।

ঈদও কেটেছে এরই মধ্যে। করোনার ঈদ ও নানা প্রসঙ্গ নিয়ে জগো নিউজের সঙ্গে কথা বলেছেন সময়ের আলোচিত নায়িকা পরীমনি। তুলে ধরা হলো আলাপের চুম্বক অংশ।

জাগো নিউজ : করোনায় এক ভয়ঙ্কর সময় পার করছে সারা পৃথিবীর মানুষ। এরমধ্যে কেমন কাটলো আপনার ঈদ?
পরীমনি : এই সময় সবাই ঘরেবন্দী ঈদ করেছে। অনেক ভয়ের মধ্যে সময় পার করছে মানুষ। এরমধ্যেও হতাশা কাটিয়ে ঈদ করেছি। এটাই তো বড় বড় কথা! ঘরের মধ্যে থেকে মানুষ নরমালি যা করে তাই করছি। আর ঈদের বিশেষ যা পরিকল্পনা ছিলো সব তুলে রেখেছি পরিবারের জন্য, আমার ঈদ হবে সামনে।

জাগো নিউজ : কী পরিকল্পনা?
পরীমনি : আগেই সব বলতে চাচ্ছি না। এটা সময় হলেই সবাই জানতে পারবেন।

জাগো নিউজ : এই প্রথম একটা ঈদ সম্পূর্ণ অন্যরকম ভাবে কাটলো, বন্দি ঈদে যে বিষয়গুলো বেশি মিস করে গেছেন?
পরীমনি : আমার সকল আনন্দ উৎসব ঘিরে থাকেন আমার নানু ভাই। এই ঈদে ব্যতিক্রম ঘটলো। ঈদের দিন নানুকে সালাম করা ও নানুর সাথে বসে খাওয়াটাকে ভীষণ মিস করেছি।

জাগো নিউজ : ঈদে কী উপহার পেলেন, প্রিয় মানুষের কাছে?
পরীমনি : ঈদ তো এবার দূর্যোগের মধ্যেই কাটাতে হলো। প্রিয় মানুষরা সবাই কাছেও ছিল না।

জাগো নিউজ : লকডাউনের সময় নিজেকে ব্যস্ত রাখছেন যেসব কাজে?
পরীমনি : আমি আমার মতো করেই সময়গুলো কাটানোর চেষ্টা করছি। আর নিজেকে সব সময় কোনো না কোনো কাজে ব্যস্ত রাখতেই হবে। এটা আবশ্যক মনে করছি না। সময় আসলে থেমে থাকে না সে তার নিয়মেই চলতে থাকে।

জাগো নিউজ : প্রতিকূলতার মধ্যেও মানুষ স্বপ্ন দেখতে ভালোবাসে। আর সকল সমস্যা কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করে। বর্তমান সময় নিয়ে আপনার ভাবনা কী?
পরীমনি : এত কঠিন জিনিস নিয়ে আমি ভাবতে পারি না। আমার ভাবনায় এর কোন সমাধান ও আসবে না। সুতরাং স্বাভাবিক সুস্থ সময়ের জন্য অপেক্ষা করা ছাড়া কোনো উপায় নাই।

জাগো নিউজ : সারাদেশে আপনার, ফ্যান ফলোয়ার ও ভক্তদের এই সময় কোন ম্যাসেজটি আপনি পৌঁছে দিতে চান?
পরীমনি : সবাইকে একটা কথায় বলবো। যে যেখানে যে অবস্থা থাকি না কেনো আমাদের উচিৎ নিজেদের সাধ্য অনুযায়ি মানুষের পাশে থাকা। নিজের ভালোর পাশাপাশি অন্যের ভালোর দিকেও খেয়াল রাখাটাও ভীষণ রকম জরুরি।

জাগো নিউজ : সিনেমা হল বন্ধ, কবে খুলবে অনিশ্চিত। দেশের বাইরে অনলাইনে নতুন ছবি মুক্তি দিতে দেখা যাচ্ছে। আপনার কয়েকটি ছবি মুক্তির অপেক্ষায় আছে। এগুলো মুক্তির বিষয়ে কী কোনো পরিকল্পনা হচ্ছে?

পরীমনি : এই মুহূর্তে আমি কি মুক্তির বিষয়ে কোনো ভূমিকা রাখতে পারি! এটা কেবলই প্রোডাকশনের ব্যাপার।

জাগো নিউজ : সবশেষে যে বিষয়টি বলতে চান।
পরীমনি : শেষ একই কথায় বলবো সকলেই সুস্থ থাকেন আর অন্যকে সুস্থ রাখেন।

এমএবি/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]