হঠাৎ আড়ালে নায়িকা একা : জানা অজানা যত কথা

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:২৯ পিএম, ৩১ জুলাই ২০২১

অনেক দিন ছিলেন না কোনো আলোচনায়। হঠাৎ ফিরে এলেন নাটক-সিনেমায়। সেভাবে নিয়মিত হতে পারেননি। আজ শনিবার তিনি আলোচনায় এলেন গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগে পুলিশের কাছে আটক হয়ে। বলছি এক সময়ের হিট নায়িকা একার কথা।

তোজাম্মেল হক বকুল পরিচালিত ‘রাখাল রাজা’ ছবির মাধ্যমে শাহিদা আরবী সিমন নাম নিয়ে ঢাকার চলচ্চিত্রে তিনি অভিষিক্ত হয়েছিলেন। সেটি ১৯৯৭ সালের ঘটনা। পরের বছরই প্রয়াত সুপারস্টার মান্নার জুটি হিসেবে ‘তেজী’ ছবির মাধ্যমে নিজের ক্যারিয়ারের তেজ বাড়ান তিনি।

ততদিনে একা নাম ধারণ করে নিয়েছিলেন। বলা যায়, ডিপজল প্রযোজিত এবং কাজী হায়াৎ পরিচালিত তেজী ছবিটিই একাকে চিত্রনায়িকা হিসেবে তারকা খ্যাতি এনে দেয়।

পরে নিজের সমসাময়িক প্রায় সব তারকা নায়কদের সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করে হিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন একা।

সবচেয়ে সফল ছিলেন নায়ক মান্নার সঙ্গে। মান্নার সঙ্গেই টানা ২০-২৫টির মতো ছবি মুক্তি পায় একার। ওই সময় এ জুটিকে লুফে নিয়েছিল সিনেমার দর্শক।

মান্নার মৃত্যুর পর রুবেল, অমিত, আমিন খান, আলেকজান্ডার বো, শাকিল খান, ফেরদৌস, শাকিব খান সবার সঙ্গেই অভিনয় করে সাফল্য পেয়েছেন এ নায়িকা।

কিন্তু ২০১২ সালের পর অনেকটা হুট করেই চলচ্চিত্র জগৎ থেকে একা দূরে সরে যান। তার সর্বশেষ সিনেমা কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘পাগলা হাওয়া’ মুক্তি পায় ২০১২ সালে।

কারণ হিসেবে একা ২০১৯ সালে এক সাক্ষাৎকারে জাগো নিউজকে বলেছিলেন, ‘যেহেতু মান্না ভাইয়ের সঙ্গে আমার সফল জুটি গড়ে উঠেছিল তাই উনার চলে যাওয়ার পর বেশ ভুগতে হয়েছে আমাকে। অনেকের সঙ্গে জুটি বেঁধে কাজ করেছি মান্না ভাই মারা যাওয়ার পর। কিন্তু তেমন করে কারও সঙ্গেই জমে ওঠেনি।

সিনেমা হিট করেছে। কিন্তু দেখতে পাচ্ছিলাম চারদিকে একটা ষড়যন্ত্র চলছে। শেষ পর্যন্ত নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছিলাম।

মান্না ভাইয়ের মৃত্যুর পর অনেক ছবির অফার ছিল। শাকিব খানের সাথেও ৮-১০টির মতো ছবিতে কাজ করেছি। তখন প্রায় সব সিনেমাই হিট হতো। শাকিবসহ অন্য নায়কদের সঙ্গে যেসব ছবি করেছি সেগুলো কিন্তু হিট ছিল। অনেক ছবি এখনো পড়ে আছে যেগুলো মুক্তি পায়নি। কিছু ছবি আছে যেগুলোর কাজই শেষ হয়নি।’

এরপর প্রায় ছয় বছরের বিরতি দিয়ে ২০১৮ সালে আবার কিছু সিনেমায় কাজ করেন তিনি। সেগুলো মুক্তির অপেক্ষায়। কাজ করেছেন ছোট পর্দায়ও। সেই অর্থে নিয়মিত ছিলেন না আর।

এলএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]