পরীমনির অপেক্ষায় বায়োপিক, প্যারোলে মুক্তি চাইবে প্রীতিলতার টিম

মইনুল ইসলাম
মইনুল ইসলাম মইনুল ইসলাম , বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৫১ পিএম, ২৯ আগস্ট ২০২১

ঢালিউডের আলোচিত নায়িকা পরীমনি কারাগারে। মাদক মামলায় গ্রেফতার করে কয়েক দফা রিমান্ড শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। বর্তমানে কাশিমপুর কারাগারে কয়েদি জীবন কাটছে সময়ের আলোচিত নায়িকার।

আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর তার জামিন শুনানি। তার মুক্তির দাবিতে চলছে বিক্ষোভ-সমাবেশ।

এদিকে পরীমনির কারাবাসে বিপাকে পড়েছে তার দুই সিনেমা ও একটি ওয়েব ফিল্মের পরিচালক। তিনটি সিনেমা হলো আরটিভি প্রযোজিত সঞ্জয় সমাদ্দারের ‘বায়োপিক’, চয়নিকা চৌধুরীর পরিচালনায় ওয়েব ফিল্ম ‘অন্তরালে’ এবং রাশিদ পলাশের সিনেমা ‘প্রীতিলতা’।

এর মধ্যে আগস্টেই শুরু হওয়ার কথা ছিল ‘প্রীতিলতা’ সিনেমার শুটিং। প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন পরী। তার আগেই গ্রেফতার হয়ে কারাগারে তিনি। অন্যদিকে সিয়াম আহমেদের বিপরীতে ‘বায়োপিক’ সিনেমার শুটিং শুরু হওয়ার কথা ছিল সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে। তার কিছুদিন পরই শুরু হওয়ার কথা ছিল ‘অন্তরালে’র কাজ।

কিন্তু পরী না থাকায় এগুলোর সিডিউলে বিপর্যয় নেমেছে। অনিশ্চয়তার মধ্যে আছে কোটি টাকার প্রজেক্ট। পরী এখনো কারাগারে। ১৩ সেপ্টেম্বর যদি নায়িকা জামিন না পান বিপদ বাড়বে।
এক্ষেত্রে পরিচালকরা কি ভাবছেন? পরীর জন্য অপেক্ষা নাকি নতুন কাউকে নিয়ে শুরু?

‘বায়োপিক’ নির্মাতা সঞ্জয় সমাদ্দার জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমি এখনও আশা করছি পরীমনি ফিরে আসবেন। তাকে নিয়েই শুটিং শুরু করবো আমরা। যদি তা না হয় তবে বাকি সিদ্ধান্ত ‘বায়োপিক’র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া নেবে। তাদের সঙ্গে ১৫ সেপ্টেম্বর মিটিং করবো। নতুন যে সিদ্ধান্ত আসে সেটা জানাতে পারবো।’

এদিকে পরিচালক চয়নিকা চৌধুরীর সঙ্গে জাগো নিউজ যোগাযোগ করতে চেষ্টা করলে তার মুঠোফোনের নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়। ‘অন্তরালে’র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সূত্রে জানা গেছে, তারা পরীর অপেক্ষায়। তাদের প্রত্যাশা ১১ সেপ্টেম্বর ফিরে আসবেন নায়িকা। তারপর নতুন করে সিডিউল তৈরি করে শুটিং হবে ওয়েব সিরিজটির।

বেশ কয়েক বছর আগে ‘প্রীতিলতা’ সিনেমাটির মহরত হয়। এরপর বলা চলে এর কথা ভুলেই গিয়েছিলেন সিনেমাপ্রেমীরা। পরীমনিকে প্রীতিলতা চরিত্রে চূড়ান্ত করে চমক দেন নির্মাতা রাশিদ পলাশ।

সম্প্রতি পরীমনিকে নিয়ে প্রীতিলতার লুকও প্রকাশ করেছিলেন। সেটি বেশ আলোচনায় আসে। ঠিক করেছিলেন শুটিংয়ের দিন-তারিখ। নিয়েছিলেন প্রস্তুতি। তবে নায়িকা হঠাৎ আটক হওয়ায় সব ওলট পালট হয়ে যায়। কিন্তু নায়িকা পরীকে ছাড়া প্রীতিলতার কথা ভাবছেন না রাশিদ পলাশ ও তার টিম।

তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমরা পরিমনি ছাড়া কাউকে আমাদের সিনেমায় প্রীতিলতা চরিত্রে চিন্তা করতে চাই না। প্রীতিলতা হিসেবে তাকেই আমরা সবার সামনে দেখেয়েছি। তাকে নিয়েই ছবিটি করতে চাই।

আমরা অনেক দিন চেষ্টা করেছি বিভিন্ন অভিনেত্রীকে প্রীতিলতা লুকে আনতে। কোনো অভিনেত্রী পারেনি পরীমনি ছাড়া। তাই তার জন্য আমরা অপেক্ষা করছি।

‘পরিমনি যদি মুক্ত না হন তবে সিনেমার স্বার্থে আমরা প্যারোলে তার মুক্তি চাইবো। পুরো পৃথিবীতে অনেক উদাহরণ আছে সিনেমার শুটিংয়ের জন্য শিল্পীদের প্যারোলে মুক্তি দেয়া হয়। একজন শিল্পীর সঙ্গে অনেক কিছুই জড়িত। অনেক অর্থনৈতিক লোকসানের বিষয়ও থাকে। এ বিষয়টি আমরা আদালতে তুলে ধরবো’- যোগ করেন ‘নাইওর’ সিনেমার পরিচালক রাশিদ পলাশ।

এমআই/এলএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]