১০ বছর ধরে একুশের ফেরিওয়ালা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি পিরোজপুর
প্রকাশিত: ০৪:৩৭ পিএম, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
১০ বছর ধরে একুশের ফেরিওয়ালা

মাতৃভাষার ইতিহাসকে নতুন প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দিতে কাজ করে যাচ্ছেন পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলার আ. লতিফ খসরু। ফেব্রুয়ারি এলেই তিনি বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হাজির হন ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস নিয়ে। স্বেচ্ছায় তিনি কাজটি করছেন প্রায় দশ বছর ধরে। শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিনামূল্যে বিতরণ করেন নিজের তৈরি একুশের পাণ্ডুলিপি (পুস্তিকা)।

ভাষার মাসজুড়ে শিক্ষানুরাগী ও সামাজিক উদ্যোক্তা আ. লতিফ খসরু এমন কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি কাউখালী ইতিহাস ঐতিহ্যের সংগ্রহশালার প্রতিষ্ঠাতা। মানুষের কাছে তিনি ‘একুশের ফেরিওয়ালা’ হিসেবে পরিচিত হয়ে উঠছেন। কারো কারো কাছে তিনি আবার ‘শিক্ষাবন্ধু’।

এ বছরও ১ ফেব্রুয়ারি কাউখালী সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং কাউখালী কিন্ডার গার্টেনের শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেন এ পাণ্ডুলিপি। কাউখালী থানা চত্বরে ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান শিক্ষার্থীদের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে এ পুস্তিকা তুলে দেন।

khashru-in

কাউখালী সরকারি মডেল প্রধমিক বিদ্যালয়ের ৫ শ্রেণির ছাত্র কেএম বরকত উল্লাহ বলেন, ‘প্রতিবছর ভাষার মাস এলেই খসরু কাকা আমাদের স্কুলে আসেন। একুশের ইতিহাস জানাতে তিনি স্কুলে স্কুলে ঘুরে বেড়ান।’

স্থানীয়রা জানান, আ. লতিফ খসরু মাতৃভাষার ইতিহার চর্চার এমন মহতি কাজ করে চলেছেন। তিনি সংগ্রহ করেছেন একুশের ইতিহাস এবং ভাষা সংগ্রামীদের নানা তথ্য। এ তথ্য নিয়ে তৈরি করেছেন একটি পাণ্ডুলিপি (পুস্তিকা)।

এ ব্যাপারে আ. লতিফ খসরু জাগো নিউজকে বলেন, ‘এ পাণ্ডুলিপির মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা কিছুটা হলেও ভাষা আন্দোলন সম্পর্কে জানতে পারবে। ওদের মধ্যে ভাষাচর্চার আগ্রহ সৃষ্টি হবে।’

শিক্ষক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব বাবু সুব্রত রায় জাগো নিউজকে বলেন, ‘মাতৃভাষার প্রতি ছাত্রছাত্রীদের মমত্ববোধ বাড়াতে স্বেচ্ছাশ্রমে এমন মহান উদ্যোগ অনুকরণীয়।’

হাসান মামুন/এসইউ/জেআইএম