শতবর্ষী বৃদ্ধা অনায়াসে তুলতে পারেন ৬০ কেজি

ফিচার ডেস্ক
ফিচার ডেস্ক ফিচার ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:২১ পিএম, ০১ ডিসেম্বর ২০২১

বয়স একটি সংখ্যা মাত্র। কোনো কাজে বাঁধা হতে পারে না এই সংখ্যা। মনের অদম্য ইচ্ছা আপনাকে যে কোনো বয়সে এনে দেবে সাফল্য। বয়সকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে শত বছরেও দিব্যি ওজন তুলছেন এই নারী।

ফ্লোরিডার এডিথ মুরওয়ে ট্রায়না ১০০ বছর বয়সে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম ওঠালেন। তাও আবার সবচেয়ে বেশি বয়সের পেশাদার ভারোত্তোলক হিসেবে।

জীবনের ১০০টি বসন্ত পার করে এডিথে শরীরে এখন বয়সের ছাপ। কাঁধ একটু সামনের দিকে ঝুঁকে গিয়েছে। কিন্তু ইচ্ছে শক্তিতে এতটুকু ভাটা পড়েনি। এক সময় নাচের শিক্ষিকা ছিলেন এডিথ। ৯১ বছর বয়সে প্রথম ভারোত্তোলন শুরু করেন এডিথ।

jagonews24

বন্ধু কারমেন গাটওর্থের আমন্ত্রণে তার জিমে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানেই অন্যান্যদের ভারোত্তোলন করতে দেখেন। সকলে পারলে তিনি পারবেন না কেন? বয়সের তোয়াক্কা না করেই শুরু করে দেন ভারোত্তোলন। প্রথম প্রথম সমস্যা হতো। তবে ধীরে ধীরে ভার তোলা এডিথের অভ্যাসে পরিণত হয়।

এখন নাকি প্রায় ৬০ কেজি ওজন তুলতে পারেন এডিথ। আর এর জন্য বিভিন্ন জায়গায় পুরস্কারও পেয়েছেন। এবার গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের খাতাতেও নাম লিখিয়ে ফেললেন শতায়ু। ফ্লোরিডার এডিথ হয়ে উঠেছেন বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বয়সের পেশাদার ভারোত্তোলক।

নিজের এই কৃতিত্বে এডিথ তো খুশিই, তার চেয়েও বেশি আনন্দিত বন্ধু তথা ট্রেনার কারমেন। সাফল্যের পরও প্রশিক্ষণে একদিনও কামাই নেই এডিথে। আরও বেশি ওজন নিজের হাতে তুলতে চান তিনি।

সূত্র: গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড

কেএসকে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]