যৌন হয়রানি : নার্সিং অধিদফতর ঘেরাও মঙ্গলবার

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৪:৪৯ পিএম, ২১ এপ্রিল ২০১৯

কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালের পরিচালকের বিরুদ্ধে নারী নার্সিং অফিসারকে যৌন হয়রানির প্রতিবাদে অভিযুক্ত পরিচালকের দ্রুত অপসারণ ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি এবং ফরিদপুরে চিকিৎসক কর্তৃক নার্স প্রহৃত হওয়ার ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে রোববার রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচি পালিত হয়।

বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন (বিএনএ) কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি ও স্বাধীনতা নার্সেস পরিষদের (স্বানাপ) উদ্যোগে রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সমাবেশ থেকে মঙ্গলবার নার্সিং অধিদফতর ঘেরাও ও আগামী ৭২ ঘণ্টা সব সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে কালো ব্যাজ ধারণ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন বিএনএর সভাপতি ইসমত আরা পারভীন, সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিন বাদশা, স্বানাপ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সোনালী রানী দাস, মহাসচিব ইকবাল হোসেন সবুজ, যুগ্ম সম্পাদক মাজহারুল জুয়েল, বিএনএর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল শাখা সভাপতি কামাল পাটোয়ারী ও সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান জুয়েল প্রমুখ।

nurse-(2)

ফেনীতে মাদরাসা ছাত্রী নুসরাত হত্যাকাণ্ডের কয়েকদিনের মধ্যে রাজধানীর একটি হাসপাতালে পরিচালকের বিরুদ্ধে একজন সিনিয়র নার্সের যৌন হয়রানির অভিযোগ নিয়ে স্বাস্থ্য সেক্টরে তোলপাড় শুরু হয়।

এদিকে যৌন হয়রানি ও শ্লীলতাহানির অভিযোগে কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী হাসপাতালের পরিচালক ডা. আমিরুল হাসানের বিরুদ্ধে তদন্তে নেমেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। একজন যুগ্ম সচিবের নেতৃত্বে অভিযোগের সত্যতা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এছাড়া মানবাধিকার কমিশন এ ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।

এমইউ/জেএইচ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :