দেশে দেশে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন


প্রকাশিত: ১১:৪৪ এএম, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পালিত হচ্ছে বাঙালির ঐতিহাসিক আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। ঢাকায় ১৯৫২ সালে তৎকালীন পাকিস্তানি শাসকের চাপিয়ে দেয়া রাষ্ট্রভাষা উর্দূর পরিবর্তে বাংলার দাবিতে প্রাণ হারান অনেক ছাত্র-জোয়ান।  

বাংলাদেশে একুশের প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রীসহ সর্বস্তরের মানুষ।

বাঙালির ঐতিহাসিক এই দিনটি ঘিরে বিশ্বজুড়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হচ্ছে। পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশেও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। মাতৃভাষা দিবসের আগের সন্ধ্যায় পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী শাহবাজ  শরীফ একটি বিবৃতি দিয়েছেন। এতে তিনি বলেন, সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য রক্ষা ও প্রসারের অন্যতম উৎস হলো ভাষা।

পাকিস্তানের লাহোর কলেজ ফর উইমেন ইউনিভার্সিটিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করা হয়েছে। কলেজের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে মানসম্মত শিক্ষা ও ভাষাগত বৈচিত্র্যতার জন্য মাতৃভাষার গুরুত্ব তুলে ধরা হয়। লাহোরের এই কলেজে একটি সেমিনারও অনুষ্ঠিত হয়েছে।

shaheed
ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বিভিন্ন স্থানেও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও ভাষাশহীদ স্মরণে একুশে ফেব্রুয়ারি উদযাপিত হচ্ছে। মঙ্গলবার সকালে বেনাপোল ও পেট্রাপোল সীমান্তের নো-ম্যানসল্যান্ডে রক্ত বিনিময় কর্মসূচির মাধ্যমে একুশে উদযাপন শুরু হয়। এতে অন্তত ৪০ ব্যাগ রক্ত বিনিময় হয়। দুই দেশের দুটি ব্লাড ব্যাংকের গাড়িতে করে এসব রক্ত নিয়ে যাওয়া হয়।

ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। মঙ্গলবার সকালে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান তিনি। এক টুইট বার্তায় বলেন, সব ভাষাই সমান এবং মত প্রকাশের জন্য মাতৃভাষার ব্যবহার হওয়া উচিত।

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল ৯টায় দূতাবাসে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে একুশে উদযাপন শুরু হয়। দূতাবাসের অস্থায়ী শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।

নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে যথাযথ মর্যাদায় শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপিত হয়েছে। ২০ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ৯টা থেকে একুশের প্রথম প্রহর পর্যন্ত ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। shaheed
পরে বঙ্গবন্ধু অডিটোরিয়ামে স্থাপিত অস্থায়ী শহীদ মিনারের সামনে দাঁড়িয়ে ভাষা শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধা, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, ব্যবসায়ী, সাংবাদিক ও কলামিস্টসহ বিভিন্ন পেশার বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাঙালি উপস্থিতি উপস্থিত ছিলেন।

রাত ১২টা ১মিনিটে মিশনে স্থাপিত শহীদ মিনারে স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেনের নেতৃত্বে মিশনের কর্মকর্তা কর্মচারিবৃন্দ ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের দেশ ফিজিতে উদযাপিত হয়েছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। দেশটির শিক্ষামন্ত্রী ফিজির সব স্কুলে একুশে স্মরণে কমপক্ষে এক ঘণ্টার কর্মসূচি পালনের নির্দেশ দিয়েছিলেন। ফিজিতে সব ধরনের মাতৃভাষা  সুরক্ষা ও সংরক্ষণের লক্ষ্যে ওই কর্মসূচিতে শিশুদের অন্তর্ভুক্ত রাখা হয়।

প্রত্যেক বছর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে বিশ্বের ১৮৮টি দেশে নানা আয়োজনে পালিত হয়ে আসছে দিনটি। অন্যান্য বছরের মতো চলতি বছরও বিশ্বের বিভিন্ন দেশে দিনটি উদযাপনে রাষ্ট্রীয়ভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে। ১৯৫২ সাল থেকে ২১ ফেব্রুয়ারিকে মাতৃভাষা দিবস হিসেবে পালন করা হয় বাংলাদেশে। ১৯৯৯ সালে ইউনেস্কো প্রত্যেক বছরের এই দিনটিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত নেয়।

এসআইএস/আরআইপি