‘শুধু রাম মন্দির, অন্য কিছু নয়’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৪৭ এএম, ২৫ নভেম্বর ২০১৭
‘শুধু রাম মন্দির, অন্য কিছু নয়’

ভারতের হিন্দু জাতীয়তাবাদী ও বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবক সংগঠন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) সভাপতি মোহন ভাগবত বলেছেন, অযোধ্যার বিতর্কিত জমিতে রাম মন্দির ছাড়া অন্য কিছুই তৈরি করতে দেয়া হবে না। তিনি বলেন, ‘শুধু রাম মন্দির। অন্য কিছু নয়।’

শুক্রবার দক্ষিণ ভারতের কর্ণাটকের উদুপিতে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ আয়োজিত এক কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন। অযোধ্যায় রাম মন্দির তৈরি হতে আর খুব বেশি দেরি নেই বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

মোহন ভাগবত বলেন, ‘অযোধ্যায় (বিতর্কিত জমিতে) মন্দির আমাদের বানাতেই হবে। সেদিন দূরে নয়, যেদিন মন্দিরটার মাথার ওপর একটা গৈরিক পতাকা উড়বে।’ আগে যে রকম মন্দির ছিল, ঠিক তেমন মন্দিরই অযোধ্যায় গড়া হবে, মন্তব্য ভাগবতের।

বিতর্কিত ভূখণ্ডের ভবিষ্যৎ কী, তা যে এখনো আদালতে বিচারাধীন, সে কথা ভাগবত নিজের ভাষণে উল্লেখ করেছেন। বলেছেন, ‘আমরা মন্দির গড়বই। এটা কোনো জনমোহিনী কথা নয়। এটা আমাদের বিশ্বাস এবং তা বদলাবে না।’

উল্লেখ্য, গত শতাব্দীর আশির দশকের শেষ দিক থেকে ভারতের হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলো বাবরী মসজিদ ভেঙে রামমন্দির তৈরি করার দাবি করে। এরপর ১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর কয়েক লাখ উগ্র হিন্দুত্ববাদী জনতা বাবরী মসজিদ গুঁড়িয়ে দেয়। এরপরেই ভারতজুড়ে শুরু হয় দাঙ্গা, এতে প্রায় দু হাজার মানুষ প্রাণ হারায়।

২০১০ সালে এলাহাবাদ হাইকোর্ট বিরোধপূর্ণ জমিটি তিন ভাগ করার নির্দেশ দেন। রায়ে জানানো হয়, মুসলিম সম্প্রদায়ের সুন্নি ওয়াক্ফ বোর্ড এক-তৃতীয়াংশ এবং নির্মোহী আখড়া ও রামলালা গোষ্ঠী নামে হিন্দুধর্মীয় দুটি সংগঠন বাকিটা পাবে।

বিএ/এমএস