সিরিয়ায় কুর্দি অবস্থানে তুরস্কের বিমান হামলা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:০৯ এএম, ২১ জানুয়ারি ২০১৮
সিরিয়ায় কুর্দি অবস্থানে তুরস্কের বিমান হামলা

সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে কুর্দি মিলিশিয়াদের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান শুরু করেছে তুরস্ক। এর ফলে সিরিয়ার সাত বছরের সংঘাতে এখন আরও একটি যুদ্ধক্ষেত্র যোগ হলো এবং যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে নতুন করে উত্তেজনার আশঙ্কা তৈরি হতে পারে।

সিরিয়ার আফরিন অঞ্চলে কুর্দি মিলিশিয়াদের অবস্থান লক্ষ্য করে বোমা হামলা চালিয়েছে তুরস্কের যুদ্ধ বিমান। কয়েকদিন ধরেই তুরস্ক সেখানে কুর্দি অবস্থানগুলোর ওপর কামানের গোলা বর্ষণ করছে।

সিরিয়ার কুর্দি মিলিশিয়াদের বিরুদ্ধে তুরস্ক তাদের এই অভিযানের নাম দিয়েছে অপারেশন ‘অলিভ ব্র্যাঞ্চ’। তুর্কী সেনাবাহিনী বলছে, গ্রিনিচ মান সময় শনিবার দুপুর দু’টায় তাদের অভিযান শুরু হয়। মূলত কুর্দি মিলিশিয়া গোষ্ঠী ওয়াইপিজি এবং জঙ্গী গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট তাদের এই অভিযানের লক্ষ্য।

তুর্কী যুদ্ধ বিমানগুলো আফরিন অঞ্চলের কুর্দি অবস্থান লক্ষ্য করে বোমা হামলা চালাচ্ছে। কুর্দি গোষ্ঠী ওয়াইপিজি বলছে, কয়েকটি গ্রামে এবং আফরিন শহরে বিমান হামলা হয়েছে। বিমান হামলায় কমপক্ষে নয়জন নিহত হয়েছে।

ইতোমধ্যেই ওই অঞ্চল থেকে নিজেদের সেনা সরিয়ে নিয়েছে রাশিয়া। তারা তুরস্কের এই অভিযানের ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে এবং সব পক্ষের প্রতি সংযম দেখানোর জন্য আহ্বান জানিয়েছে। এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দফতরও এ ধরণের অভিযানে না যাওয়ার জন্য তুরস্কের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিল।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান কুর্দিদের বিরুদ্ধে তার দেশের স্থল অভিযান শুরু হয়েছে বলে আগেই ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি সিরিয়ার এই কুর্দি মিলিশিয়াদেরকে সন্ত্রাসী উল্লেখ করে বলেন, এরা আসলে তুরস্কের ভেতর সক্রিয় বিদ্রোহী গোষ্ঠী পিকেকে-র অংশ। তিনি আরও বলেন, পশ্চিম দিকে শুরু হওয়া এই অভিযান পরে উত্তর দিকের মানবিজ শহরকে লক্ষ্য করেও চালানো হবে এবং কুর্দিদের পুরো করিডোরটি নিশ্চিহ্ন করে দেয়া হবে।

টিটিএন/এমএস