প্রেম করা বন্ধ হলেই নারী নির্যাতন বন্ধ হবে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:১১ এএম, ২৮ মার্চ ২০১৮

প্রেম করা বন্ধ হলেই নারী নির্যাতন বন্ধ হয়ে যাবে। এমন মন্তব্য করেছেন ভারতের মধ্য প্রদেশের বিজেপি নেতা পি এল শাক্য। গত রোববার ভারতের গুণা সরকারি কলেজের অনুষ্ঠানে বিজেপি নেতা এমন মন্তব্য করেন। খবর ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

ভারতে যৌন নিপীড়ন নিয়ন্ত্রণের জন্য গুণা সরকারি কলেজের এক অনুষ্ঠানে শাক্য বলেন, মেয়েরা প্রেম করে কেন? প্রেম করা বন্ধ করে দিলেই তো হয়, তাহলেই তো সমস্যার সমাধান হয়ে যায়। নির্যাতনকারীরা পালাবার পথ পাবে না।

শাক্য বলেন, নারী দিবস পালন করা বিদেশি রীতি ছাড়া কিছু নয়। ভারতীয় দর্শনে নারীরা অত্যন্ত সম্মানীয়, বছরে চারবার পূজা হয় তাদের। আলাদা করে নারী দিবস পালনের দরকার নেই।

এর আগেও নানাধরনের মন্তব্য করে আলোচনায় এসেছেন পি এল শাক্য। বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা ইতালিতে বিয়ে করায় তাদের দেশপ্রেমে ঘাটতি রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সেসময় তিনি বলেন, রাম, কৃষ্ণ, যুধিষ্ঠির সকলেই যখন এ দেশে বিয়ে করতে পেরেছেন তাহলে বিদেশে যাওয়ার মানে কি? তাহলে বিরাটেরই বা এমন কী হলো, যে তাকে বাইরে গিয়ে বিয়ে করতে হবে! তার নাম, উপার্জন সবই ভারতে। আর সে টাকা তিনি উড়িয়ে দিলেন বিদেশে গিয়ে!

ওই নেতা আরও বলেন, ‘পশ্চিমা সংস্কৃতিতে ভেসে গিয়ে তোমরা প্রেম করার চেষ্টা করো না। পশ্চিমা সংস্কৃতিকে দূরে রাখা উচিত। বয়ফ্রেন্ড, গার্লফ্রেন্ড কারো কিচ্ছু থাকবে না, ব্যস। তাহলে নারী নির্যাতন এমনিতেই বন্ধ হয়ে যাবে।’

টিটিএন/পিআর