১০ লাখ উইঘুর মুসলিমকে আটকে রেখেছে চীন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:১৭ এএম, ১১ আগস্ট ২০১৮

১০ লাখ উইঘুর মুসলিমকে আটকে রেখেছে চীন। উইঘুর সম্প্রদায়ের লোকজনকে চরমপন্থাবিরোধী শিবিরে আটকে রাখা হয়েছে বলে জানতে পেরেছে জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থা। এ বিষয়ে বেশ কিছু রিপোর্টও তাদের হাতে এসেছে।

জাতিসংঘের এলিমিনেশন অব রেসিয়াল ডিসক্রিমিনেশন কমিটির সদস্য গে ম্যাকডোগাল চীন বিষয়ক দু’দিনব্যাপী বৈঠকে এই অভিযোগ তুলেছেন। তিনি উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, চীন সরকার উইঘুর স্বায়ত্বশাসিত অঞ্চলকে এমন কিছু একটা করেছে যা একটি বিশাল বন্দিশিবিরে পরিণত হয়েছে।

তবে এ বিষয়ে তাৎক্ষণিক কোন মন্তব্য করেনি চীন। এ বিষয়ে জেনেভায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে সোমবার চীনকে প্রশ্ন করা হবে বলে জানানো হয়েছে। তবে এর আগেও এ ধরনের বন্দিশিবিরের অস্তিত্ব থাকার বিষয়টি অস্বীকার করেছে বেইজিং।

উইঘুর মুসলিম সম্প্রদায়ের বেশিরভাগই চীনের শিনজিয়াং প্রদেশে বসবাস করে। ওই প্রদেশের শতকরা প্রায় ৪৫ ভাগই উইঘুর সম্প্রদায়। জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থার তথ্য অনুযায়ী,কয়েক মাস ধরে শিনজিয়াংয়ে অনেক বেশি মুসলিম সংখ্যালঘু এবং উইঘুরদের আটক করা হচ্ছে।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এবং হিউম্যান রাইটস ওয়াচের মতো মানবাধিকার সংস্থাগুলো জাতিসংঘের ওই মানবাধিকার কমিটির কাছে বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরেছে। তাদের দাবি, গণকারাগারে বন্দীদের আটকে রেখে প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করতে বাধ্য করা হচ্ছে।

টিটিএন/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :