দেশ চালানোর টাকা নেই

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৩৮ এএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর থেকেই পাকিস্তানের দুর্বল অর্থনীতি নিয়ে হতাশা প্রকাশ করতে দেখা গেছে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে। যত দিন যাচ্ছে এই হতাশা যেন আরও বাড়ছে। হতাশ গলায় তিনি জানান, ‘চরম পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যেতে হচ্ছে প্রশাসনকে। দেশ চালানোর টাকা নেই আমাদের।’

শুক্রবার দেশের আমলাদের একটি বৈঠকে যোগ দেন ইমরান খান। সেখানেই পাকিস্তানকে নিয়ে আবেগতাড়িত হয়ে পড়েন তিনি। আমলাদের সামনে দেশের বেকারত্ব সমস্যা ও অর্থনৈতিক মানদণ্ড ভেঙে পড়ার কথা স্বীকার করে নেন। তিনি বলেন, ‘পাক নাগরিকদের একটা বড় অংশ যুব সমাজ। তাদের জন্য চাকরির ব্যবস্থা করা বর্তমান সরকারের কাছে একটা চ্যালেঞ্জের বিষয়। ফাঁদে পড়েছে নতুন সরকার।

এরপরেই দেশকে এই অবস্থা থেকে টেনে তোলার বার্তা দেন পাক প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘আমরাই পারব দেশকে এই সমস্যা থেকে বের করে আনতে। এজন্য আমাদের দায়িত্ব নিতে হবে। নিজেদের মধ্যে পরিবর্তন আনতে হবে।’

‘পাকিস্তানে পানির সমস্যা প্রবল। বাঁধ তৈরিতে আপনারা অর্থ সাহায্য করুন।’ প্রবাসী পাক নাগরিকদের উদ্দেশ্যে কয়েকদিন আগে এমন আকুতি করতে দেখা যায় পিটিআই প্রধানকে। তিনি জানান, পানি সংকট পাকিস্তানের কাছে বড় সমস্যা।

ফলে দেশের মানুষকে রক্ষার্থে প্রবাসীদের এগিয়ে আসতে হবে। প্রত্যেক প্রবাসী পাক নাগরিককে দেশের জন্য হাজার মার্কিন ডলার করে অনুদান দেওয়ার অনুরোধ করেন তিনি। এই অনুদানের মাধ্যমেই দেশের বিভিন্ন নদীতে বাঁধ তৈরির কাজ শুরু করতে পারবে সরকার। পাশাপাশি, তাকে সরব হতে দেখা গেছে পূর্ববর্তী পাক প্রশাসনের বিরুদ্ধে। অতীতের পাক সরকারের বিরুদ্ধে সরকারি অর্থ নয়ছয়ের অভিযোগ তুলেছেন ইমরান খান। দেশের মানুষের অর্থ পূর্ববর্তী সরকার আত্মসাৎ করেছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

টিটিএন/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :