আমিরাত সৌদির বিরুদ্ধে হেগে মামলা করছে কাতার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৩৫ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

কাতারের সরকারি সংবাদ সংস্থা হ্যাকিংয়ের সঙ্গে সৌদি আরব জড়িত বলে তদন্তে প্রমাণ পেয়েছে দোহা। গত বছরের মাঝের দিকে এ ঘটনার জেরে মধ্যপ্রাচ্যে ব্যাপক কূটনৈতিক সঙ্কট শুরু হয়। এই হ্যাকিংয়ের দায়ে সৌদি আরবের বিরুদ্ধে নেদাল্যান্ডসের রাজধানী হেগে অবস্থিত আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা করা হবে বলে জানিয়েছেন কাতারের অ্যাটর্নি জেনারেল আলি বিন ফিতাইস আল-মারি।

শুক্রবার নিউইয়র্কে মার্কিন একদল বিচারকের উপস্থিতিতে সংবাদ সম্মেলনে আল-মারি এ ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, আন্তর্জাতিক আইনবিষয়ক কর্মকর্তারা কাতারি গণমাধ্যম হ্যাকিংয়ের সঙ্গে সৌদি আরব এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পেয়েছেন।

গত বছরের মে মাসে কাতার নিউজ অ্যাজেন্সির ওই হ্যাকিংয়ে সৌদি ও আমিরাত জড়িত বলে নিশ্চিত করেছেন মার্কিন অ্যাটর্নি জেনারেল মাইকেল মুকাসে। এখন এটি কীভাবে মোকাবেলা করা যায় সেব্যাপারে আইনজীবীরা আলোচনা করছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

হ্যাকিংয়ের এই অভিযোগ তদন্তে গত এক বছর ধরে মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই) ও ব্রিটেনের জাতীয় অপরাধ তদন্ত সংস্থাকে সহায়তা করেছে কাতার কর্তৃপক্ষ।

মধ্যপ্রাচ্যের কূটনৈতিক সঙ্কট দ্বিতীয় বছরে পদার্পন করেছে। গত বছরের জুনে সৌদি আরবের নেতৃত্বে সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিসর কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে।

ওই সময় দোহার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে সমর্থন, অর্থায়ন ও ইরানের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ এনে সৌদি নেতৃত্বাধীন এ কয়েকটি দেশ কাতারের বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপ করে।

তবে কাতার বরাবরই তাদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে বলছে, দেশটির সার্বভৌমত্ব ও জাতীয় ব্যাপারে হস্তক্ষেপের চেষ্টা করছে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট।

এসআইএস/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :