এখন ট্রাম্পেরও একই সন্দেহ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৫৬ পিএম, ১৯ অক্টোবর ২০১৮

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, সৌদির সাংবাদিক জামাল খাশোগি মারা গেছেন এ বিষয়টি এখন স্পষ্ট। যারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তাদেরকে কঠোর পরিণতি ভোগ করতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত হওয়ার বিষয়টি প্রমাণিত হলে তার প্রশাসন সৌদির জন্য ভয়াবহ শাস্তির বিষয়টি পর্যালোচনা করবে। এ বিষয়ে সঠিক তদন্তের জন্য সৌদির ওপর চাপ আরও বাড়ানো হবে বলেও জানান তিনি।

ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, খাশোগি হত্যাকাণ্ডে সৌদি আরবের জড়িত থাকার যে অভিযোগ উঠেছে তা তার প্রশাসনের পররাষ্ট্র নীতির জন্য একটি মারাত্মক সংকট তৈরি করেছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, তিনি স্বীকার করে নিচ্ছেন যে, খাশোগি নিহত হয়েছেন। বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার তথ্য থেকে এমনটাই ধারণা করা যাচ্ছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

ট্রাম্পে বলেন, খাশোগি নিখোঁজের বিষয়টি প্রমাণিত হলে সৌদির সঙ্গে নিরাপত্তা এবং প্রতিরক্ষা সম্পর্কের বিষয়ে নতুন করে ভাবতে হবে যুক্তরাষ্ট্রকে।

এক সাংবাদিক ট্রাম্পকে প্রশ্ন করেছিলেন যে, খাশোগি যে নিহত হয়েছেন সে বিষয়টি তিনি বিশ্বাস করেন কিনা। এর জবাবে ট্রাম্প বলেন, এটা আমার কাছে সে রকমই মনে হচ্ছে। এটা সত্যিই দুঃখজনক।

তিনি আরও বলেন, খাশোগির নিখোঁজের বিষয়টি তদন্তের পর যে ফলাফল পাওয়া যাবে তার ওপর ভিত্তি করে সৌদি আরবকে হয়তো যুক্তরাষ্ট্রের কঠোর প্রতিক্রিয়ার মুখোমুখি হতে হবে। সৌদির নাগরিক এবং ওয়াশিংটন পোস্টের কলামিস্ট খাশোগি গত ২ অক্টোবর ইস্তাম্বুল শহরের সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশ করার পর আর বের হননি। এর পরে তাকে আর প্রকাশ্যে দেখা যায়নি।

ট্রাম্প বলেন, আমি মনে করি এটা খারাপ এবং আসলেই খারাপ কাজ। তবে আমরা দেখছি কি হয়। তুরস্কের কর্মকর্তারা উপযুক্ত দলিল-প্রমাণ পেশ করে জানিয়েছেন, খাশোগিকে ওই কনস্যুলেটের ভেতর নির্যাতন করে হত্যা করার পর তার লাশ কেটে টুকরা টুকরা করা হয়েছে। সৌদি আরব থেকে বিশেষ বিমানে করে আসা ১৫ সদস্যের একটি নিরাপত্তা দল এ কাজ করেছে। কিন্তু রিয়াদ শুরু থেকেই খাশোগি সংক্রান্ত এসব তথ্য অস্বীকার করে আসছে।

টিটিএন/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :