ইসলামের শত্রুরা আমাকে নিশানা করেছে : জাকির নায়েক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:২৮ পিএম, ০২ ডিসেম্বর ২০১৮

ইসলামের বিতর্কিত প্রচারক ও ভারতের দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ডা. জাকির নায়েক বলেছেন, তিনি ভারতীয় কোনো আইন লঙ্ঘন করেননি এবং ইসলামের শত্রুরা তাকে নিশানা বানিয়েছে। শনিবার মালয়েশিয়ার পারলিস প্রদেশের রাজধানী কাঙ্গারে দেয়া এক বক্তৃতায় এ মন্তব্য করেন তিনি।

মালয়েশিয়ায় আশ্রয়প্রাপ্ত জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে অর্থ-পাচার ও ভারতে ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগ রয়েছে। গত বছর দেশটির একটি আদালত জানায়, ভারতের বিভিন্ন ধর্মীয় গোষ্ঠীর মধ্যে ধর্মীয় বিদ্বেষ ও ঘৃণার প্রচার করছেন জাকির নায়েক।

বর্তমানে মালয়েশিয়ায় বসবাস করছেন বিতর্কিত এই ইসলাম প্রচারক। তার বিরুদ্ধে ভারতে তদন্ত শুরু হওয়ার পর মালয়েশিয়া সরকার দেশটিতে তাকে বৈধভাবে বসবাসের সুযোগ দিয়েছে।

আরও পড়ুন : চীনে নগ্ন সেলফি জমা দিলেই মিলছে শিক্ষা ঋণ

পার্লিসে দেয়া বক্তৃতায় জাকির নায়েক বলেন, “তিনি কখনোই ভারতীয় কোনো আইন ভঙ্গ করেননি। আমি শান্তিমূলক বার্তা প্রচার করছি, আমি মানবতার সমাধান দিচ্ছিলাম, শুধুমাত্র যারা শান্তি পছন্দ করে না; তারাই আমাকে অপছন্দ করেন।”

ইসলাম প্রচারের কারণেই তিনি শত্রুদের নিশানায় পরিণত হয়েছেন বলে মন্তব্য করেন। “ইসলামের শত্রুরা এটাকে ভালোভাবে নিতে পারছে না। আর সেটা পশ্চিমা বিশ্ব অথবা আমার জন্মভূমি ভারতেও।”

কট্টরপন্থী ইসলাম প্রচারের কারণে জাকির নায়েকের সমালোচনা রয়েছে। ৫৩ বছর বয়সী এই চিকিৎসক ইসলাম ধর্মত্যাগ ও সমকামীদের মৃত্যুদণ্ডের সাজা দেয়া উচিত বলে তার বিভিন্ন বক্তৃতায় উল্লেখ করেন। ইউটিউবের একটি ভিডিওতে তাকে বলতে দেখা যায়, ওসামা বিন লাদেন আমেরিকায় যদি সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে থাকেন, তাহলে তিনি বড় সন্ত্রাসী এবং আমি তার সঙ্গে আছি।

আরও পড়ুন : জাকির নায়েক ভারতে ফিরছেন?

২০১৬ সালের জুলাইয়ে ঢাকার গুলশানে হলি আর্টিশান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলা হয়। ওই জঙ্গিরা নৃশংস তাণ্ডব চালিয়ে অন্তত ২২ জনকে হত্যা করে। মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) এই হামলার দায় স্বীকার করে।

জাকির নায়েকের মালিকানাধীন টেলিভিশন চ্যানেল পিস টিভিতে তার জঙ্গিবাদে উস্কানিমূলক বক্তৃতা শুনে উদ্বুদ্ধ হয়ে এই জঙ্গিরা হামলা চালায় বলে অভিযোগ উঠে। পরে বাংলাদেশে পিস টিভির সম্প্রচার বন্ধ করে দেয়া হয়। এর আগে ২০১০ সালে যুক্তরাজ্যে জাকির নায়েকের প্রবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়।

মালয়েশিয়ার পার্লিসে জাকির নায়েকের শনিবারের ওই অনুষ্ঠানে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী, যুবরাজ ও ধর্মীয় জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের পাশাপাশি প্রায় এক হাজার দর্শক উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন : বন্ধুর জন্য নিজের কিডনি দান!

গত জুলাইয়ে মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, জাকির নায়েক মালয়েশিয়ায় কোনো ধরনের সমস্যা তৈরি করছেন না এবং তাকে ফেরত পাঠাবে না তার দেশ। ভারতীয় গণমাধ্যম বলছে, জাকির নায়েককে ভারতে প্রত্যাবর্তনে মালয়েশিয়ার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে নয়াদিল্লি।

পার্লিসে দেয়া বক্তৃতায় জাকির নায়েক ইসলামের মৌলিক শিক্ষা অনুসরণের জন্য নিজেকে মৌলবাদী বলে দাবি করেন। তিনি বলেন, আমি একজন মৌলবাদী মুসলিম হিসেবে নিজেকে গর্বিত মনে করি।

সূত্র : রয়টার্স

এসআইএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :