ফ্রান্স থেকে ৩ হাজার ক্ষেপণাস্ত্র কিনছে ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:১০ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০১৯

ফ্রান্স থেকে রাফাল যুদ্ধবিমান কেনা নিয়ে ভারতের ক্ষমতাসীন সরকারের দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যহারের অভিযোগের বিতর্ক এখনও শেষ হয়নি। এর মাঝেই ফ্রান্স থেকে আরো অত্যাধুনিক ট্যাঙ্ক বিধ্বংসী লঞ্চার ক্ষেপণাস্ত্র কেনার পরিকল্পনা করছে ভারত।

দেশটির সংবাদমাধ্যম জি নিউজ বলছে, কমপক্ষে ৩ হাজার মিলান টি-২ লঞ্চারের ক্ষেপণাস্ত্র কিনতে সম্প্রতি উচ্চ পর্যায়ে বৈঠক করেছে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। এই বৈঠকে দ্বিতীয় প্রজন্মের ৩ হাজারের বেশি মিলান টি-২ ক্ষেপণাস্ত্র কেনার পরিকল্পনা নেয়া হয়। ফরাসী একটি কোম্পানির সঙ্গে হায়দরাবাদের সামরিক সরঞ্জাম প্রস্তুতকারী সরকারি সংস্থা ভারত ডাইনামিক্সের যৌথ উদ্যোগে প্রস্তুত হবে এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র।

এক হাজার কোটি টাকার চুক্তি হতে চলেছে ফ্রান্সের ওই সংস্থার সঙ্গে। শত্রুপক্ষের যুদ্ধ ট্যাঙ্ক ধ্বংস করতে প্রায় ৭০ হাজার অ্যান্টি ট্যাঙ্ক গাইডেড মিসাইল (এটিজিএম) এবং প্রায় ৮৫০টি লঞ্চার প্রয়োজন ভারতের। তৃতীয় প্রজন্মের মিলান টি-২ ক্ষেপণাস্ত্র কেনার লক্ষ্যে এগোচ্ছে দেশটির সরকার।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের আমলের রাফাল চুক্তি বাতিল করে ফ্রান্স থেকে প্রায় ৫৮ হাজার কোটি টাকার ৩৬টি রাফাল যুদ্ধবিমান কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত। এনিয়ে দেশটিতে তুমুল বিতর্ক তৈরি হয়েছে। অফসেট, দাম ও চুক্তি প্রক্রিয়া-সহ একাধিক ইস্যু নিয়ে দেশটির ক্ষমতাসীন সরকারকে কাঠগড়ায় দাঁড় করাচ্ছেন বিরোধীরা।

যদিও ভারতের বিমানবাহিনী বলছে, প্রয়োজনীয়তা বিচার করেই দ্রুত দেশের আকাশে রাফাল যুদ্ধবিমান ওড়াতে চায় তারা। এ দিকে, রাফালের চুক্তির প্রক্রিয়ায় কোনও গলদ নেই বলে জানিয়ে দিয়েছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ে ক্ষুব্ধ বিরোধীরা যৌথ সংসদীয় কমিটি দিয়ে তদন্তের দাবি জানিয়েছেন।

এসআইএস/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :