আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণ খোলার ঘোষণা ওয়াকফ কাউন্সিলের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:১৪ এএম, ০৬ মার্চ ২০১৯

ইসরায়েলের আদেশ প্রত্যাখ্যান করে প্রাচীন জেরুজালেমে অবস্থিত আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণ খোলার ঘোষণা দিয়েছে ওয়াকফ কাউন্সিল। এই মসজিদটি মুসলমানদের কাছে অন্যতম প্রধান ধর্মীয় স্থান। কিন্তু গত সোমবার মসজিদ প্রাঙ্গণ বন্ধের আদেশ দেয় ইসরায়েলের একটি আদালত।

সাম্প্রতিক সময়ে এই মসজিদ প্রাঙ্গণ ঘিরে পুলিশের সঙ্গে সেখানে নামাজ আদায় করতে আসা ফিলিস্তিনিদের সংঘর্ষ বাঁধে। কয়েক সপ্তাহ ধরেই এই সংঘর্ষ চলছে।

মঙ্গলবার এক জরুরি বৈঠকে ওয়াক্ফ কাউন্সিলের প্রধান শেখ আবদেল আজিম সালহাব ঘোষণা দেন, ‘রহমতের দরজা’ নামে পরিচিত আল-আকসা মসজিদের বাব আল-রাহমা গেটটি মুসলমানদের জন্য খোলা থাকবে। কাউন্সিলের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, বাব আল-রাহমা এবং আল-আকসা মসজিদ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ইসরায়েলের আদালতের দেয়া কোনো আদেশ মানবে না তারা।

সালহাবের দাবি, ওকায়কফ কাউন্সিলকে ভবন সংস্কারের অনুমতি দিতে হবে ইসরায়েলকে। একইসঙ্গে পবিত্র প্রাঙ্গণ থেকে ওয়াকফ কর্মকর্তা, প্রহরী এবং এখানে প্রার্থনা করতে আসা লোকজনের প্রবেশে যে নিষেধাজ্ঞা আনা হয়েছে সেই আদেশও প্রত্যাহার করে নিতে হবে।

জেরুজালেমভিত্তিক ওয়াদি হিলওয়ে ইনফরমেশন সেন্টারের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত ফেব্রুয়ারিতে ১৩৩ ফিলিস্তিনির আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। এদের মধ্যে কাউন্সিল প্রধান সালহাবও ছিলেন। তার ওপর ৪০ দিনের জন্য আল-আকসা মসজিদে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আনা হয়।

এছাড়া কাউন্সিলের সহকারী পরিচালক শেখ নাজেহের ওপরও মসজিদ প্রাঙ্গণে প্রবেশে চার মাসের নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী, ফেব্রুয়ারিতে ২২৯ জনকে আটক করে ইসরায়েল পুলিশ।

গত মাসে ফিলিস্তিনিরা বাব আল রাহমা খুলে দেয়ার পর থেকেই জেরুজালেমে উত্তেজনা শুরু হয়। তখন থেকেই ফিলিস্তিনি মুসলিমরা সেখানে অবস্থান নেয়।

একটি নিষিদ্ধ সংগঠন এ ভবনটিকে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে ব্যবহার করছে এমন অভিযোগ এনে, ২০০৩ সালে আল-আকসা মসজিদ বন্ধ করে দেয় ইসরায়েল। সম্প্রতি এটি বন্ধের বিষয়ে চ্যালেঞ্জ করেছে ওয়াকফ কাউন্সিল।

বিশ্বের মুসলিমদের কাছে মক্কা ও মদিনার পর এটি তৃতীয় পবিত্র স্থান। ইহুদিদের কাছে এটা টেম্পল মাউন্ট নামে পরিচিত। ইহুদিদের দাবি, প্রাচীন যুগে এখানে দুটি ইহুদি মন্দির ছিল।

মঙ্গলবার জেরুজালেম পোস্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আল-আকসা বিষয়ে চরম উত্তেজনার মধ্যেই বাব আল-রাহমাতে সিনাগগ (ইহুদি ধর্মস্থান) তৈরি করে দেয়ার জন্য ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনজামিন নেতানিয়াহুর কাছে দাবি জানিয়েছে ইসরায়েলের ডানপন্থী কর্মীরা।

সূত্র : আল জাজিরা

এমএসএইচ/টিটিএন/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :