‘কাশ্মীরের জন্য আলাদা প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন হবে’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৪১ পিএম, ০২ এপ্রিল ২০১৯

ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরে একদিন স্বায়ত্তশাসন আসবে এবং এই রাজ্যের জন্য আলাদা প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও স্থানীয় রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা ওমর আবদুল্লাহ এই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

সোমবার কাশ্মীরের বান্দিপোরায় এক জনসভায় তিনি এই হুঁশিয়ারি দেন। জম্মু-কাশ্মীরের জন্য আলাদা রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের দাবির পক্ষে যুক্তি দিতে গিয়ে ওমর আব্দুল্লাহ টেনে এনেছেন স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে ভারতে অঙ্গরাজ্যগুলোর অন্তর্ভুক্তির প্রসঙ্গ।

তিনি বলেন, অনান্য অঙ্গরাজ্যগুলো কোনো শর্ত ছাড়াই ভারতে অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল। একমাত্র শর্ত দিয়েছিল জম্মু-কাশ্মীর। ন্যাশনাল কনফারেন্সের এই নেতা বলেছেন, জম্মু-কাশ্মীরের আলাদা পরিচয় থাকবে, আলাদা সংবিধান থাকবে; এমন শর্ত দেয়া হয়েছিল। তাই রাজ্যের জন্য আলাদা করে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী রাখা হয়েছিল। সেই প্রথাকেই আবার ফিরিয়ে আনতে চান ওমর আবদুল্লাহ।

কাশ্মীরের এই রাজনীতিক বলেন, জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেয়া হলে ভারতের সঙ্গে থাকা নিয়ে নতুন করে ভাবনা-চিন্তা করতে হবে। সংবিধানের ৩৫-এ অনুচ্ছেদ বাতিল হতে দেয়া হবে না বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

ওমরের দাবি, জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা দেয়ার সময় তা কোনো সময়সীমার মধ্যে বাঁধা হয়নি। বরং বলা হয়েছিল যে যতদিন জম্মু-কাশ্মীর ভারতের অঙ্গ হিসেবে থাকবে, ততদিন তারা বিশেষ মর্যাদার সুবিধা পাবে। তাই কাশ্মীরের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক ওই সূত্রেই যুক্ত হয়ে রয়েছে।

পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টির (পিডিপি) নেত্রী ও জম্মু-কাশ্মীরের আরেক সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতিও একই দাবি করেছিলেন। বিশেষ মর্যাদা সরিয়ে নিলে জম্মু-কাশ্মীরের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক শেষ হয়ে যাবে বলে তিনিও হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন।

সূত্র : জিনিউজ।

এসআইএস/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]