সৌদির বিদ্যুৎ স্থাপনায় ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৪৯ পিএম, ২০ জুন ২০১৯

সৌদির একটি বিদ্যুৎ স্থাপণায় ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়েছে। ইরান সমর্থিত ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা সৌদির দক্ষিণাঞ্চলীয় জিযান প্রদেশের আল শুকাইব শহরে ওই হামলা চালিয়েছে।

বুধবার হুতি নিয়ন্ত্রিত আল মাসিরাহ টিভি এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। তবে সৌদির তরফ থেকে এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করা হয়নি।

মার্কিন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তারা সৌদির বিদ্যুৎ স্থাপণায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলার বিষয়ে অবগত আছে। তবে ওই হামলায় কোন ক্ষয়ক্ষতি বা হতাহতের বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।

গত মঙ্গলবারও ইরান সমর্থিত হুতি বিদ্রোহীরা সৌদিতে ড্রোন হামলা চালিয়েছে। তবে ওই ড্রোন হামলা সফলভাবে প্রতিহত করা সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছে জোটের বিমান প্রতিরক্ষা বাহিনী।

সৌদি প্রেস এজেন্সিতে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে জোটের মুখপাত্রের বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, আবহার আবাসিক এলাকা লক্ষ্য করে ওই হামলা চালানো হয়। তবে নির্দিষ্ট লক্ষ্যে আঘাত হানার আগেই সফলভাবে ড্রোন দু'টি ভূপাতিত করা সম্ভব হয়েছে। ফলে বড় ধরনের কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

গত সপ্তাহেও আবহা এলাকায় বেশ কয়েকবার হামলা চালিয়েছে হুতি বিদ্রোহীরা। সে সময় বিমানবন্দরে একটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ২৬ জন আহত হয়।

গত কয়েক মাস ধরেই সৌদির বিভিন্ন স্থান লক্ষ্য করে হামলা চালাচ্ছে হুথি বিদ্রোহীরা। গত মাসেও সৌদির জিযান শহরে একটি ড্রোন গুলি করে ভূপাতিত করা হয়।

২০১৪ সালে রাজধানী সানা দখলের পর সৌদি সমর্থিত ইয়েমেনের প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মনসুর আল হাদিকে ক্ষমতা থেকে বিতাড়িত করে হুথিরা। তারপর থেকেই দেশের বাইরে রয়েছে তিনি। তাকে ক্ষমতায় ফেরাতে ২০১৫ সালের জুনে ইয়েমেনে হুথি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে হামলা শুরু করে সৌদি নেতৃত্বাধীন আরব জোট।

সে কারণেই সৌদির বিভিন্ন লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালাচ্ছে হুথিরা। ইয়েমেনের এই বিদ্রোহীগোষ্ঠী বলছে, তারা সৌদি আরব, ইয়েমেন এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের ৩শ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাকে টার্গেট করে হামলা অব্যাহত রাখবে। এরই অংশ হিসেবে একের পর এক সৌদির বিভিন্ন স্থানে হামলা চালানো হচ্ছে।

টিটিএন/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :