‘বাংলাদেশের সঙ্গে হাত মিলিয়ে প্রধানমন্ত্রী হতে চান মমতা’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:১৫ পিএম, ২৫ জুন ২০১৯

বাংলাদেশের সঙ্গে হাত মিলিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী হতে চান বলে অভিযোগ করেছে রাজ্যের বিরোধীদল বিজেপি। মঙ্গলবার দেশটির সংসদে দেয়া বক্তৃতায় তিনি রাজ্য বিজেপি দলীয় সংসদ সদস্য দিলীপ ঘোষ এই অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেশের প্রধানমন্ত্রী হতে চান। আমরাও চাই। সংসদে বাংলায় কথা বলা যেতে পারে। কিন্তু ৪২টি আসন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী হওয়া যায় না।

মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে দিলীপ ঘোষ বলেন, মমতা নতুন যোজনা নিয়ে এসেছেন, বাংলাদেশের সঙ্গে হাত মিলিয়ে ক্ষমতায় আসবেন। এই জন্য নির্বাচনী প্রচারে বাংলাদেশ থেকে অভিনেতাও নিয়ে আসতে হয়েছে তাকে।

দিলীপের অভিযোগ, পশ্চিমবঙ্গে সরকার আছে, আইন নেই। থানা আছে, পুলিশ নেই। স্কুল-কলেজ থাকলেও ধর্নায় বসছেন শিক্ষাকর্মীরা। মুখ্যমন্ত্রী আমাদের এমন সোনার বাংলা উপহার দিয়েছেন। তিনি বলেন, ভাষা নিয়ে বিভেদ তৈরি করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিহারিদের দের ‘বাহারি’ বলা হচ্ছে। বাংলা শিখে রাজ্যে প্রবেশ করতে হবে বলে মমতা নির্দেশ দিয়েছেন।

পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার তীব্র সমালোচনা করেন বিজেপি দলীয় এই সাংসদ। দিলীপ বলেন, দেশের ৫৪২টি আসনের মধ্যে শুধুমাত্র ৪২টি আসনে হিংসার বাতাবরণ তৈরি হয়েছে। সেখানে ভোটার থাকলেও ভোট দেয়ার অধিকার নেই।

মমতাকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ইভিএমে হারলে ব্যালট করার দাবি তুলছেন, ব্যালটে হারলে নির্বাচনই বন্ধ করে দিতে চাইছেন। মমতার এখনই ক্ষমতা ছেড়ে দেওয়া উচিত। জি নিউজ।

এসআইএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]