যুক্তরাষ্ট্র ভুলে নিজেদের ড্রোন ভূপাতিত করেছে : ইরান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৩৫ পিএম, ১৯ জুলাই ২০১৯

বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্র দাবি করে তারা পারস্য উপসাগরের হরমুজ প্রণালীতে ইরানের একটি ড্রোন ভূপাতিত করেছে। কিন্তু মার্কিন এই দাবি অস্বীকার করে ইরান বলছে, তাদের কোনো ড্রোন খোয়া যায়নি বরং ভুল করে যুক্তরাষ্ট্র নিজেদের ড্রোন ভূপাতিত করেছে।

বার্তা সংস্থা এএফপি তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, শুক্রবার ইরানের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্বাস আরাকাচি ইরানি ড্রোন ধ্বংস করার দাবি প্রত্যাখ্যান করে এমন মন্তব্য করেছেন। যুক্তরাষ্ট্র তাদের যুদ্ধজাহাজের ওপর আকাশ থেকে নিজেদের ড্রোন ভূপাতিত করেছে বলে তিনি ওয়াশিংটনকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার পরামর্শ দেন।

যুক্তরাষ্ট্র ড্রোন তেহরানের ভূপাতিত করেছে এমন দাবির প্রেক্ষিতে ইরানের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্বাস আরাকচি এক টুইট বার্তায় লেখেন, ‘হরমুজ প্রণালী কিংবা অন্য কোথাও আমাদের কোনো ড্রোন খোয়া যায়নি। আমি উদ্বিগ্ন যে, ইউএসএস-বক্সার (মার্কিন যুদ্ধজাহাজ) ভুল করে তাদেরই কোনো ড্রোন ভূপাতিত করেছে।’

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত বৃহস্পতিবার বলেন, ‘আমেরিকার নৌবাহিনী ইরানের একটি ড্রোন ভূপাতিত করেছে। হরমুজ প্রণালীতে নিরাপত্তা ঝুঁকি তৈরি করার কারণে ইরানের ওই ড্রোনটি ভূপাতিত করে ইউএসএ-বক্সার।’

আরও পড়ুন> ইরানি ড্রোন ভূপাতিত করেছে যুক্তরাষ্ট্র

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আরও বলেন, ‘শত্রুপক্ষের হামলা মোকাবিলা করার জন্য উপসাগরে টহলরত ইউএসএ-বক্সার প্রতিরক্ষামূলক পদক্ষেপের অংশ হিসেবে ইরানের একটি আকাশযান ধ্বংস করেছে। ড্রোনটি রণতরির এক হাজার গজের মধ্যে ঢুকে তাতে থাকা সেনাদের জন্য হুমকি হওয়ায় সেটি ভূপাতিত করা হয়।’

মার্কিন প্রেসিডেন্টের ওই দাবির পর ইরানের সর্বোচ্চ কূটনীতিক ও দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ সঙ্গে সঙ্গে জানান, ইরানের কোনো ড্রোন হারানোর খবর তিনি তখনও পাননি। তখন তিনি যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দফতরে ছিলেন।

চিরশত্র হিসেবে পরিচিত এই দুই দেশের সর্বশেষ এমন উত্তেজনা তৈরি হয় গত মাসে ইরান মার্কিন একটি ড্রোন ভূপাতিত করার পর। ওয়াশিংটন তখন দাবি করে আন্তর্জাতিক জলসীমার উপরে থাকার পরও তেহরান অবৈধভাবে তাদের ড্রোনটি ভূপাতিত করেছে। ওই ঘটনার পর ট্রাম্প ইরানের হামলার অনুমোদন দিয়েও পরে তা প্রত্যাহার করেন।

এসএ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :