আসামে নাগরিকত্ব হারানো কেউই রাষ্ট্রহীন হবেন না : নয়াদিল্লি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:১২ পিএম, ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আসামের নাগরিক পঞ্জিকা (এনআরসি) থেকে বাদ পড়া ব্যক্তিদের কেউই রাষ্ট্রহীন কিংবা বিদেশি হিসেবে পরিগণিত হবেন না। এমনকি তারা কোনো ধরনের অধিকার থেকেও বঞ্চিত হবেন না। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এনডিটিভি বলছে, শনিবার আসামের জাতীয় নাগরিক তালিকা প্রকাশিত হয়েছে। দ্বিতীয় দফায় প্রকাশিত এই তালিকা থেকে প্রায় ১৯ লাখ মানুষকে বাদ দেয়া হয়েছে। এখন আইনি প্রক্রিয়া মোকাবিলা করে এই অবৈধ ১৯ লাখ মানুষকে ভারতীয় নাগরিকত্বের প্রমাণ দিতে হবে। তবেই তারা দেশটির নাগরিকত্ব ফিরে পাবেন।

এনআরসি নিয়ে আসামের বিরোধী দল ও ক্ষমতাসীন বিজেপির নেতাদের তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এর মাঝে নাগরিক তালিকা থেকে বাদ পড়াদের গ্রেফতার কিংবা ফেরত না পাঠাতে ভারতের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক হাই কমিশনার ফিলিপ্পো গ্র্যান্ডি।

তিনি বলেছেন, রাষ্ট্রহীনতাকে নির্মূল করার জন্য বৈশ্বিক যে প্রচেষ্টা রয়েছে সেটির ওপর বিশাল আঘাত হানবে বিপুল সংখ্যক মানুষকে জাতীয়তাহীন করার এই প্রক্রিয়া।

রোববার সন্ধ্যার দিকে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, এনআরসি থেকে বাদ পড়া ব্যক্তিরা আসামের অন্যান্যদের মতোই অধিকার ভোগ করবেন। যারা চূড়ান্ত তালিকায় ঠাঁই পাননি, তাদের গ্রেফতার করা হবে না। এমনকি আইনি সকল প্রক্রিয়ার মাধ্যমে মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত সব ধরনের সুযোগ সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন তারা।

আসাম সরকার বলছে, বিস্তারিত নির্দেশনা দিয়ে আদালতের কাছে আপিল করতে মানুষকে সহযোগিতা করা হবে। আপিলের শুনানির জন্য ইতোমধ্যে একশ' ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়েছে। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে আরো ২০০টি ট্রাইব্যুনাল স্থাপন করা হবে।

এসআইএস/এমকেএইচ