কাশ্মীরে পোস্টপেইড মোবাইল সেবা চালু সোমবার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৩৭ পিএম, ১২ অক্টোবর ২০১৯

দুই মাসেরও বেশি সময় যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন থাকার পর অবশেষে আংশিকভাবে অবরুদ্ধ কাশ্মীরে পোস্টপেইড মোবাইল সেবা পুনরায় চালু করার ঘোষণা দিয়েছে ভারত সরকার। গত ৫ আগস্ট উপত্যাকার বিশেষ সাংবিধানিক মর্যাদা রদ করে মোবাইল-ইন্টারনেটসহ সকল যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়া হয়।

ভারতীয় টেলিভিশন এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, আগামী সোমবার থেকে পোস্টপেইড মোবাইল সেবা পুনরায় চালু করার ঘোষণা দিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। গত বৃহস্পতিবার ৬৪ দিন পর অবরুদ্ধ জম্মু-কাশ্মীর পর্যটকদের জন্য পুনরায় উন্মুক্ত করার ঘোষণা দেয় ভারত সরকার।

শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে জম্মু-কাশ্মীরের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি রোহিত কানশাল বলেন, ‘আগামী সোমবার থেকে সকল ধরনের পোস্টপেইড মোবাইল সেবা পুনরায় চালু করা হবে।‘ তবে প্রিপেইড মোবাইল সেবা চালুর বিষয়ে তিনি কিছু বলেননি।

দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক এজেন্ডা হিসেবে গত আগস্টে জম্মু-কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন সংক্রান্ত বিশেষ সাবিধানিক মর্যাদা বাতিল করে দেয় ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার। এখানেই শেষ নয় তারা উপত্যকাটির রাজ্যের মর্যাদা কেড়ে নিয়ে দ্বিখন্ডিত করে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে রুপান্তরিত করে।

তারপর পরই ভারতের একমাত্র মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ রাজ্যটিকে অবরুদ্ধ করে রাখে মোদি সরকার। লাখো সেনা দিয়ে নিরাপত্তার বেষ্টনী তৈরি করা হয় যাতে সেখানকার মানুষ কোনোভাবেই সরকারের এমন সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করতে না পারে। তারই অংশ হিসেবে মোবাইল ফোন সেবা বন্ধ করে দেয়।

তবে মোবাইল সেবা চালুর কথা বলা হলেও এটা শুধু পোস্টপেইড মোবাইল সিমের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। এখনো প্রিপেইড মোবাইল সেবা চালুর ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি সরকার। কেননা সেখানকার ৯০ শতাংশ মানুষ প্রিপেইড মোবাইল সেবার আওতাধীন। তাই এটাকে মোবাইল সেবা পুনরায় চালু বলাও যাচ্ছে না।

এসএ/এমএস