পাকিস্তান জিন্দাবাদ বলায় ভারতীয় তরুণী গ্রেফতার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৪৩ পিএম, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে যোগ দিয়ে দেশবিরোধী স্লোগান দিয়েছেন ভারতের বেঙ্গালুরুর এক তরুণী। হায়দরাবাদের সাংসদ আসাদউদ্দিন ওয়াইসি ওই জনসভায় ছিলেন। তার সামনেই ওই তরুণী দেশবিরোধী স্লোগান দিয়েছেন।

একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, অমূল্য নামের ১৯ বছর বয়সী ওই তরুণী অনুষ্ঠানে সমবেত জনতার উদ্দেশে পাকিস্তান জিন্দাবাদ স্লোগান দেওয়ার আহ্বান জানান। সংবিধানকে রক্ষা করুন-এমন একটি ব্যানারে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে ওই ঘটনা ঘটে।

তরুণীর মুখে ওই স্লোগান শুনে ছুটে আসেন আসাদউদ্দিন ওয়াইসি এবং আরও দু'জন ব্যক্তি। ওই তরুণীর মুখের সামনে থেকে মাইক্রোফোন সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন তারা, ছুটে আসেন অনুষ্ঠানের আয়োজকরাও। তরুণীর কাছ থেকে মাইক্রোফোন কেড়ে নিয়ে ওয়াইসি বলেন, আমরা কোনওভাবেই আমাদের শত্রু দেশ পাকিস্তানকে সমর্থন করি না।

এরপরেই ওই তরুণীকে বিতর্কিত স্লোগান দেওয়ার অপরাধে গ্রেফতার করা হয়। ইতোমধ্যেই তার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার মামলা দায়ের করা হয়েছে।

অমূল্য নামের ওই তরুণীর বাবাও তার মেয়ের বক্তব্যের সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেছে, অমূল্য যা বলেছে তা ভুল কথা। এদিকে, অমূল্যের জামিন আবেদন খারিজ করা হয়েছে এবং তাকে তিনদিনের বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বেঙ্গালুরুতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন এবং জাতীয় নাগরিকপঞ্জির প্রতিবাদের জন্য একটি কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। ওই অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েই পাকিস্তানের পক্ষে স্লোগান দেন ওই তরুণী।

ওই ঘটনার পরে একই মঞ্চে আসাদউদ্দিন ওয়াইসি সমবেত জনগণের উদ্দেশে বলেন, তিনি ওই তরুণীর বক্তব্যের সঙ্গে একমত নন। তিনি বলেন, ওই নারীর সঙ্গে আমার বা আমার দলের কোনও সম্পর্ক নেই। আয়োজকদের তাকে এখানে ডাকা উচিত হয়নি। আর আমি যদি এটা আগে থেকে জানতাম তবে আমিও এখানে আসতাম না। আমরা ভারতের পক্ষে এবং আমরা কোনওভাবেই শত্রু দেশকে সমর্থন করি না। আমাদের পুরো আন্দোলন ভারতকে বাঁচানোর জন্য।

টিটিএন/এমকেএইচ