ইসরায়েল প্রশ্নে পাকিস্তানও কি আরবদের পথ ধরবে?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:২৩ পিএম, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

উপসাগরীয় আরব দেশগুলোকে অনুসরণ করে পাকিস্তানও ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ব্রিটিশ-পাকিস্তানি একজন বিশ্লেষক ইসরায়েলের দৈনিক হাইয়ুমকে এমনটাই বলেছেন। এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদ পর্যবেক্ষণ সংস্থা মিডল ইস্ট মনিটর।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক থিঙ্কট্যাঙ্ক ইসলামিক থিওলোজি অব কাউন্টার টেররিজমের প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক নূর ধারি সোমবার ইসরায়েলের হাইয়ুমকে বলেছেন, ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার যে ঘোষণা সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইন দিয়েছে, তাদের পদাঙ্ক অনুসরণ করবে আরও অনেক আরব দেশ।

তিনি বলেন, ‘ইসরায়েলের সঙ্গে শান্তি চুক্তির মাধ্যমে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইনের জন্য আরও কূটনৈতিক, বাণিজ্যিক ও কৌশলগত সম্পর্ক তৈরির দ্বার খুলে গেছে। আরও অনেক দেশ তাদের দলে যুক্ত হওয়ার জন্য মুখিয়ে আছে। এর মধ্যে রয়েছে যেমন ওমান, সুদান, মরোক্কো এবং সৌদি আরবের মতো দেশ।

কাতারের সঙ্গে ইসরায়েলের ভালো সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এটা ভবিষ্যতে ইসরায়েলের সঙ্গে দেশটির আনুষ্ঠানিক সম্পর্ক শুরুর জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। এ ছাড়া রাজধানী দোহায় ফিলিস্তিনের গাজা অঞ্চলের নেতাদের সঙ্গে ইসরায়েলের প্রতিনিধিদের আলোচনার মধ্যস্থতাকারীও ছিল এই কাতার।

তিনি বলেন, ‘কাতারের সঙ্গে উপসাগরীয় আরব দেশগুলোর (জিসিসিভূক্ত দেশগুলো) মধ্যে উত্তেজনাকর রাজনৈতিক সম্পর্ক আমাদের ভুলে গেলে চলবে না। ইসরায়েলের ইতোমধ্যে কাতারের সঙ্গে ভালো দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক তৈরি করেছে এবং এটা খুব নিশ্চিত যে আজ কিংবা কাল কাতারও ইসরায়েলের সঙ্গে শান্তি চুক্তি করবে।

ব্রিটিশ-পাকিস্তানি এই ভূ-রাজনৈতিক বিশ্লেষক বিশ্লেষক আরও বলেন, ‘পাকিস্তানও কিন্তু ইসরায়েলের জন্য সব দরজা সম্পূর্ণরুপে বন্ধ করে রাখেনি। তবে এখনি ইহুদিরাষ্ট্র ইসরায়েলের সঙ্গে খোলামেলাভাবে সম্পর্ক তৈরির ঘোষণা দেয়ার ব্যাপারটির ক্ষেতে পাকিস্তানের জাতীয় আকাঙক্ষা বড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘দশকের পর দশক ধরে উভয় দেশের মধ্যে গোয়েন্দা এবং সামরিক সম্পর্ক রয়েছে। এ ছাড়া পাকিস্তান কখনও ইসরায়েলকে তাদের শত্রু মনে করে না। হয়তো আরব চুক্তি হয়ে যাওয়ার সবকিছু স্বাভাবিক হলে ভবিষ্যতে ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার আনুষ্ঠানিক ঘোষণাটি দেবে ইসলামাবাদ।’

যদিও পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জানিয়েছেন, যদি গোটা বিশ্ব ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করে তারপরও ইসরায়েলের সঙ্গে পাকিস্তান সম্পর্ক স্বাভাবিক করবে না। তিনি বলেছেন, ‘ফিলিস্তিন জাতির স্বপ্নের বিরুদ্ধে যায় এমন কোনো সিদ্ধান্ত আমরা নেব না। শান্তিপূর্ণভাবে ফিলিস্তিন ইস্যুর সমাধান চাই আমরা।’

মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে ট্রাম্প প্রশাসনের মধ্যস্থতায় ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইনের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিরা। এ নিয়ে উপসাগরীয় দুটি দেশসহ আরব বিশ্বের চারটি দেশ ১৯৪৮ সালের ফিলিস্তিনের ভূমি দখল করে প্রতিষ্ঠিত ইসরায়েলকে স্বীকৃতি দিল।

এসএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]