চীনে ধর্মীয় স্বাধীনতা নেই : পম্পেও

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:১৮ এএম, ০১ অক্টোবর ২০২০

সাম্প্রতিক সময়ে চীন এবং যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সম্পর্কে বেশ উত্তেজনা বিরাজ করছে। এর মধ্যেই ইতালির রোমে সফরে গিয়ে চীনের সমালোচনা করলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও।

চীনের মানুষের ধর্মীয় স্বাধীনতা নেই বলে অভিযোগ তুলেছেন পম্পেও। এই সূত্র ধরেই তিনি জানতে চেয়েছেন যে, ভ্যাটিকান কেন বেইজিংয়ের সঙ্গে চুক্তি পুনর্নবায়নের পরিকল্পনা করছে?

বুধবার ভ্যাটিকানের হোলি সিতে মার্কিন দূতাবাসের পক্ষ থেকে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে চীনের শাসকদলকে তীব্র আক্রমণ করেন মাইক পম্পেও।

চীনের ধর্মীয় স্বাধীনতা নেই এমন অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, ‘চীনে মানুষের ধর্মীয় স্বাধীনতা যেভাবে কেড়ে নেওয়া হয় তা বিশ্বের আর কোথাও হয় না। চীনের কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃত্বে ধর্মীয় স্বাধীনতার আলো যেভাবে নেভানোর চেষ্টা চলে তা একথায় ভয়ানক।’

খ্রিস্টান ধর্মে বিশ্বাসী পম্পেও নিজেকে ধর্মীয় অধিকার রক্ষার একজন সৈনিক বলে দাবি করে চীন যেভাবে উইঘুর মুসলিম সম্প্রদায়ের উপর অত্যাচার চালাচ্ছেন তার তীব্র সমালোচনা করেছেন।

তিনি বলেন, ‘চীনের উইঘুর মুসলিমসহ সব সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষদের উপরেই অত্যাচার চালানো হয়। শুধু তাই নয়, চীনের কমিউনিস্ট পার্টির দমন নীতির ফলে সেখানে বসবাসকারী সব ধর্মীয় সম্প্রদায়ের মানুষদের জীবনই দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে।

সেখানে প্রোটেস্ট্যান্ট হাউস চার্চ ও তিব্বতীয় বৌদ্ধসহ বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষরা প্রায় প্রতিদিনই অকথ্য অত্যাচারের শিকার হচ্ছেন বলেও অভিযোগ করেছেন পম্পেও।

এদিকে, আগামী সপ্তাহেই এশিয়া সফরে আসছেন মাইক পম্পেও। জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার পাশাপাশি মঙ্গোলিয়াতেও যাওয়ার কথা রয়েছে তার।

চীন ও উত্তর কোরিয়া নিয়ে আলোচনা করার জন্যই মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এই সফর করবেন বলে জানা গেছে। জাপানে সফর করার সময় আগামী ৬ অক্টোবর সেখানকার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করার কথা রয়েছে পম্পেওর।

টিটিএন

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]