মিশেল ওবামার সঙ্গে বন্ধুত্ব: মানুষের প্রতিক্রিয়ায় ‘স্তম্ভিত’ বুশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:১৬ এএম, ২০ এপ্রিল ২০২১

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ রিপাবলিকান দলের নেতা, আর মিশেল ওবামা ডেমোক্র্যাটিক পার্টির নেতা বারাক ওবামার স্ত্রী ও সাবেক ফার্স্টলেডি। দলীয় পরিচয়ে দুজনের অবস্থান দুই প্রান্তে হলেও রাজনীতির বাইরে তাদের সম্পর্ক অত্যন্ত বন্ধুত্বসুলভ। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তার নমুনাও দেখা গেছে একাধিকবার। কিন্তু বিপরীত দলের দুই সমর্থকের এ ধরনের বন্ধুত্ব মেনে নিতে পারেনি অনেক মার্কিনি। এ নিয়ে তারা যে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে, তা দেখে ‘স্তম্ভিত’ই হয়ে গেছেন জর্জ বুশ।

মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিবিএস-এর ‘সিবিএস সানডে মর্নিং’ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, মিশেল ওবামা আর আমি যে বন্ধু হতে পারি, তাতে মার্কিন জনগণ খুবই আশ্চর্যান্বিত হয়েছে।

তিনি বলেন, মার্কিনিরা তাদের চিন্তায় এতটাই মেরুকৃত হয়েছে যে, তারা জর্জ বুশ ও মিশেল ওবামাকে বন্ধু বলে কল্পনাও করতে পারছে না।

jagonews24

বুশ ও মিশেলের সম্পর্কের বিষয়ে সাবেক মার্কিন ফার্স্টলেডি লরা বুশও বলেন, এটি শুধুই বন্ধুত্ব।

সাক্ষাৎকারে জর্জ ডব্লিউ বুশ মার্কিন কংগ্রেসকে অভিবাসন ইস্যুতে ‘কঠিন সুর’ নরম করার আহ্বান জানান। তিনি আশাপ্রকাশ করেন, এর মাধ্যমে অভিবাসীদের জন্য একটি সম্মানজনক অবস্থান নির্ধারণ করা হবে এবং তা আরও নীতিগত পরিবর্তনের দিকে ধাবিত করবে।

এসময় সাবেক প্রেসিডেন্ট অভিবাসীদের নিয়ে আঁকা ছবির নতুন বই ‘আউট অব মেনি, ওয়ান: পোর্ট্রেটস অব আমেরিকা’স ইমিগ্রান্টস’ উন্মুক্ত করেন।

তিনি বলেন, এই বইটি হয়তো দেশের নীতি পরিবর্তন করে দেবে না, তবে পরিবর্তনের চেষ্টা চালানো মানুষদের মধ্যে তার সুরও রয়েছে, সেটি অন্তত জানান দেবে।

সূত্র: সিএনএন

কেএএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]