শনি বা রোববার পৃথিবীতে আছড়ে পড়বে চীনা রকেট : পেন্টাগন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:০৩ পিএম, ০৭ মে ২০২১

মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগের সদর দফতর পেন্টাগন ধারণা করছে, পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসা চীনা রকেটের ধ্বংসাবশেষ আগামী শনি বা রোববার পৃথিবীর বুকে আছড়ে পড়বে। তবে ঠিক কোন সময়ে ও কোথায় এটি পড়বে তা জানা এখনও সম্ভব হয়নি। খবর এএফপির।

এদিকে মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন জানিয়েছেন, চীনা রকেটটি গোলা ছুড়ে নামানোর পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা বিভাগের নেই।

বৃহস্পতিবার লয়েড সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাদের অনেক কিছু করার সক্ষমতা রয়েছে, কিন্তু এটিকে গোলা ছুড়ে নামানোর পরিকল্পনা আমাদের নেই।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রত্যাশা এটি এমন কোনো জায়গায় পড়বে যেখানে কারোর ক্ষতি হবে না। আশা করা যায় সাগর অথবা এমন কোনো জায়গায়।’

লং মার্চ ৫বি নামের রকেটটি বেইজিংয়ের মহাকাশ স্টেশন থেকে আলাদা হয়ে যাওয়ার পর এটি কক্ষপথ থেকে বিচ্যুত হয়ে যায়।

লয়েডের ধারণা, কক্ষপথচ্যুত হয়ে যাওয়ার বিষয়টি চীনারা অবহেলা করেছিল।

তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি, আমরা যারা মহাকাশে কার্যক্রম পরিচালনা করি তাদের একটি শর্ত থাকা উচিত, অথবা নিরাপদ ও বিবেচনার সঙ্গে কার্যক্রম চালাতে শর্ত থাকা উচিত।’

মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, মহাকাশে ‘কার্যক্রম চালানোর পরিকল্পনা করার সময় আমরা এই ধরনের জিনিসগুলো বিবেচনায় নেব’ তা নিশ্চিত করার প্রয়োজন রয়েছে।

চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম গত কয়েকদিন ধরে আশঙ্কা প্রকাশ করে আসছে, এই রকেটের ধ্বংসাবশেষ জনবহুল অঞ্চলে বিধ্বস্ত হতে পারে আবার আন্তর্জাতিক জলসীমাতেও পড়তে পারে।

মহাকাশ বিশেষজ্ঞ সং ঝংপিংয়ের বরাত দিয়ে গ্লোবাল টাইমস জানিয়েছে, চীনের স্পেস মনিটরিং নেটওয়ার্ক এ বিষয়ে নিবিড়ভাবে নজর রাখবে এবং কোথাও কোন ক্ষতি হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

মহাকাশে এই রকেটের ধবংসাবশেষ এখন পৃথিবী প্রদক্ষিণ করছে এবং এটি বায়ুমণ্ডলের নিম্ন স্তরে ঢুকছে। এর মানে হল, এটি পৃথিবীর চারিদিকে বৃত্তাকারে ঘুরতে ঘুরতে নীচের দিকে নেমে আসছে।

এমকে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]