কর্ণাটকে ১০ মে থেকে দুই সপ্তাহের লকডাউন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৫ পিএম, ০৭ মে ২০২১ | আপডেট: ১০:১৮ এএম, ০৮ মে ২০২১

ভারতে প্রতিদিনই নতুন রেকর্ড গড়ছে করোনাভাইরাসে সংক্রমণ ও মৃত্যু। এমন পরিস্থিতিতেও প্রশাসনের সতর্কতা বিধি মানছেন না কর্ণাটকের জনগণ। তাই রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরাপ্পা পূর্ণ লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছেন।

আগামী ১০ মে থেকে ১৪ দিন কর্ণাটকে পূর্ণ লকডাউন জারি থাকবে বলে শুক্রবার (৭ মে) জানান তিনি।

এদিন দুপুরেই পূর্ণ লকডাউনের বিষয়ে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ইয়েদুরাপ্পা। জনগণ প্রশাসনের জারি করা সতর্কতাবিধি মানছে না জানিয়ে ইয়েদুরাপ্পা জানিয়েছিলেন, জনগণ যদি সরকারের সঙ্গে সহযোগিতা না করে তাহলে রাজ্যে পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করতে বাধ্য হবেন তিনি।

এ বক্তব্যের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই লকডাউনের ঘোষণা দিলেন ইয়েদুরাপ্পা।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে গত ২৭ এপ্রিল থেকে ১২ মে পর্যন্ত কর্ণাটকে দুই সপ্তাহের ‘জনতা কারফিউ’ ঘোষণা করেছিল ইয়েদুরাপ্পার সরকার।

শুক্রবার কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বললেন, ‘মানুষ জনতা কারফিউ মানছেন না। প্রশাসনের দেয়া সতর্কতাবিধির পরোয়া করছেন না। এমন চললে রাজ্যে সম্পূর্ণ লকডাউন জারি হওয়া থেকে কেউ রুখতে পারবে না।’

এদিন ১৪ দিনের লকডাউন ঘোষণা করে কর্ণাটক সরকার জানায়, রাজ্যে বাড়তে থাকা সংক্রমণের কথা মাথায় রেখেই সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করা হলো।

এসএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]