চীনে জনপ্রিয় টিকটকার হত্যাকারীকে মৃত্যুদণ্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৪১ পিএম, ১৪ অক্টোবর ২০২১

জনপ্রিয় টিকটকারকে হত্যার দায়ে চীনে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির এক আদালত। গায়ে পেট্রোল ঢেলে লামু নামের ওই নারীকে হত্যা করা হয়। তবে হত্যাকারী তার সাবেক স্বামী ট্যাং। লামু ছিলেন একজন জনপ্রিয় টিকটকার ও ব্লগার। হত্যার সময়ও সে লাইভে ছিল। ওই ঘটনার পর চীনজুড়ে ক্ষোভের সৃষ্টি হয় এবং নারীর প্রতি সহিংসতা নিয়ে নতুন করে বিতর্ক তৈরি হয়। বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

তিব্বতী ওই নারী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অত্যন্ত জনপ্রিয় ছিল। টিকটকের চীনা ভার্সন ‘ডাউইনে’ তার কয়েক লাখ ফলোয়ার ছিল। গ্রামীণ জীবন নিয়ে সে সামাজিক মাধ্যমে ভিডিও পোস্ট করতো সে। কোনো মেক-আপ ছাড়াই ভিডিও পোস্ট করে পেয়েছিলেন ব্যাপক প্রশংসা।

হত্যার পরে তার ডাউইন পেজে হাজার হাজার মানুষ মেসেজ দেয়। এছাড়া মাইক্রোব্লগিং প্ল্যাটফর্ম ‘ওইবোর’ লাখ লাখ ব্যবহারকারীরা হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে তার জন্য ন্যায় বিচার দাবি করে।

লামু মৃত্যুর আগে কয়েক বার পুলিশের কাছে নির্যাতনের অভিযোগ করেছিলেন। বর্ণনা করেছিলেন স্বামীর নির্যাতনের ঘটনা। কিন্তু পুলিশ এটিকে পারিবারিক বিষয় হিসেবে উল্লেখ করে অভিযোগ আমলে নেয়নি। একপর্যায়ে নির্যাতন সইতে না পেরে তখন সে স্বামীকে তালাক দেয়। তারপর থেকেই তাকে তার স্বামী মারার হুমকি দিয়ে আসছিল।

আদালতের বিবৃতিতে বলা হয়, এ হত্যাকাণ্ডটি ছিল অত্যন্ত নিষ্ঠুর যা সমাজের ওপর মারাত্মক নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছিল। চীন ২০১৬ সালে পারিবারিক সহিংসতাকে অপরাধ হিসবে স্বীকৃতি দিয়েছে। কিন্তু দেশটির গ্রামাঞ্চলে এখনো এ ধরনের সহিংসতা ব্যাপকভাবে চালু আছে।

এমএসএম/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]