তাইওয়ান ইস্যুতে ‘সামরিক সংঘাতে’ জড়াতে পারে যুক্তরাষ্ট্র-চীন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৩২ পিএম, ২৯ জানুয়ারি ২০২২

তাইওয়ান ইস্যুতে চীন ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ‘সামরিক সংঘাতের’ মুখোমুখি হতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রে চীনা রাষ্ট্রদূত কিন গ্যাং। যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল পাবলিক রেডিওকে দেওয়া সাক্ষাতকারে চীনের এই শীর্ষ কূটনীতিক বলেন, সেক্ষেত্রে দেশ দুটির মধ্যে ‘টিন্ডারবক্সের’ মতো হলো তাইওয়ান ইস্যু।

কিন গ্যাং গতবছর জুলাই মাসে ওয়াশিংটনে চীনের রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিযুক্ত হন। স্থানীয় সময় শুক্রবার (২৮ জানুয়ারি) চীনা রাষ্ট্রদূত বলেন, তাইওয়ান কর্তৃপক্ষ যদি যুক্তরাষ্ট্রের দ্বারা ক্ষমতাপ্রাপ্ত হয়ে স্বাধীনতার পথে হাঁটে, তাহলেে এটি চীন-যুক্তরাষ্ট্রের মতো দেশ দুটির সামরিক সংঘাতের কারণ হতে পারে।

২০২২ সালের শীতকালিন অলিম্পিকের আয়োজনের ব্যাপারে তিনি বলেন বেইজিং প্রস্তুত রয়েছে। একই সঙ্গে জিনজিয়াং প্রদেশের উইঘুর মুসলিমদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ অস্বীকার করেন তিনি। তিনি দাবি করেন, শুধু ‘সন্ত্রাসী’ যারা তাদের আটক করে কারাগারে রাখা হয়েছে। অন্যরা ভোকেশনাল স্কুলে যাচ্ছেন।

আগামী সপ্তাহে ২০২২ সালের শীতকালিন অলিম্পিক গেম শুরু হচ্ছে বেইজিংয়ে। মানবাধিকার সংগঠনগুলো চীনের উইঘুর, তিব্বতিয়ান এবং অন্যান্য সংখ্যালঘু জাতিগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে নিপীড়নের অভিযোগ এনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অলিম্পিকে অংশ না নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে আসছে। গতবছর ৬ ডিসেম্বর বাইডেন চীনের অলিম্পিক আয়োজন বয়কট করার ঘোষণা দেন। সেকারণে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিরা অংশ নিচ্ছেন না এবার।

তাইওয়ান নিজেকে স্বতন্ত্র দাবি করলেও বেইজিং তাইওয়ানকে নিজেদের অংশ মনে করে। তাইওয়ান ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই উত্তেজনা বিরাজ করছে।

সূত্র: ব্লুমবার্গ

এসএনআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]