সাবেক প্রতিমন্ত্রী আবু সাঈদের প্রতারণার মামলার প্রতিবেদন ৪ মার্চ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৪৮ পিএম, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

নামের আগে অধ্যাপক ব্যবহার করার অভিযোগে প্রতারণার মামলায় সাবেক প্রতিমন্ত্রী আবু সাঈদের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ৪ মার্চ ধার্য করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার মামলাটির তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ধার্য ছিল। শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল না করায় ঢাকা মহানগর হাকিম মোর্শেদ আল মামুন ভূঁইয়া প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নতুন দিন ধার্য করেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, অধ্যাপক আবু সাঈদ কোনো কলেজে কখনও অধ্যাপনা করেছেন বলে সমাজের মানুষ বা তার জানা নেই। তবে খণ্ডকালীন প্রভাষক হিসেবে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অল্প সময়ের জন্য কর্মরত ছিলেন বলে জনশ্রুতি আছে। তিনি অধ্যাপক না হয়েও বিভিন্ন জায়গায়, বই পুস্তকে এবং নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের হলফ নামায় অধ্যাপক পদবি ব্যবহার করেন। যার দ্বারা সমাজের মানুষের নিকট প্রচার করে ভোট পাওয়ার পাঁয়তারাসহ সাধারণ জনগণকে বিভ্রান্ত করে চলছেন। আসামি অধ্যাপক না হয়ে অধ্যাপকের পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করে আসছেন এবং জনগণের কাছে ভুল তথ্য প্রচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করছেন। যা দ্বারা আসামি দণ্ডবিধি ৪১৯/৪২০ ধারায় অপরাধ করেছেন।

এই ঘটনায় গত ১০ ডিসেম্বর সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকুর ছেলে ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ড. এস এম নাসিফ শামস বাদী হয়ে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে মামলাটি করেন। আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে মামলাটি শেরেবাংলা নগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

জেএ/জেএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]