বিড়ালের ভাষা বুঝবেন যেভাবে

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল ডেস্ক লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৫৬ পিএম, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

বাড়িতে বিড়াল পুষতে ভালোবাসেন অনেকেই। প্রিয় পোষা প্রাণিটির সঙ্গে অনেক কথাই হয়তো বলেন কিন্তু তার কোনো কথা বুঝতে পারেন কি? ভাবছেন, এ আবার কেমন প্রশ্ন! বিড়ালের কথা কেউ কি বুঝতে পারে! জীবজন্তুদের তো আর মানুষের মতো ভাষা নেই, তাদের ভাবভঙ্গী দেখেই বুঝে নিতে হয়। পেট বিশেষজ্ঞ জেসিকা পিয়ার্স-এর বিস্তারিত গবেষণা রয়েছে বিড়াল নিয়ে।

‘রান, স্পট, রান: দ্য় এথিকস অফ কিপিং পেটস’ এবং ‘দ্য লাস্ট ওয়াক: রিফ্লেকশনস অন পেটস অ্যাট দ্য এন্ডস অফ দেয়ার লাইভস’ বইগুলির রচয়িতা জেসিকা পোষা বিড়ালের হাবভাব, তার মিয়াও করার ভঙ্গি ইত্যাদি দেখে তার মনের কথা টের পাওয়ার কিছু উপায় বলেছেন—

শর্ট মিঁয়াও অর্থাৎ একবার ছোট্ট করে ডেকেই থেমে যাওয়া- এটা অনেকটা হাই-হ্যালো করার মতো।

Biral-2

যখন আবেদন-নিবেদন করার থাকে, সেটা খেতে চাওয়ার জন্যেই হোক বা বাইরে বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার জন্য, তখন তাদের মিঁয়াও ডাকের পিচ বদলে যায়। খুব চড়াও নয় আবার খুব আলতো নয়, মাঝামাঝি একটা টোন শোনা যায় ওদের গলায়।

বেশ লম্বা করে মিঁয়ায়ায়ায়ায়াও মানে খুব করে কিছু একটা আবদার জানানো হচ্ছে আবার যদি একেবারে নিচু স্বরে টানা মিঁয়াও ডাক শোনেন তবে বুঝতে হবে যে কিছু একটা ব্যাপারে অভিযোগ জানানো হচ্ছে।

অনেক সময়ে বিড়ালেরা একটু মনোযোগ চায়, অনেকটা মানুষের মতোই। যদি দেখেন যে বিড়ালের পেট ভরা এবং তার প্রাকৃতিক কর্মটিও সারা হয়েছে কিছুক্ষণ আগে, তা সত্ত্বেও সে একটানা মিয়াও ডেকে চলেছে, তবে বুঝতে হবে যে তার একটু অ্যাটেনশন চাই।

Biral-3

খুব ধকল সহ্য় করে ক্লান্ত হয়ে গেলে বিড়ালেরা একটানা মিঁয়াও ডেকে চলে। এই যেমন, বাইরে বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার সময় অনেকক্ষণ যদি তাকে ঝোলায় বসিয়ে রাখা হয়, তবে সে বেশ ক্লান্ত বোধ করে।

বিড়ালের মন-মেজাজ যখন খুব ভালো থাকে, তখন তার ‘মিঁয়াও’ ডাকার ধরনধারণ বদলে যায়। ডাকটা বেশ ঘন লাগে শুনতে।

এইচএন/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :