ওজন বেশি হলেই বাড়বে মাড়ির সমস্যা!

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল ডেস্ক লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৩৯ এএম, ১৫ জানুয়ারি ২০২২

অতিরিক্ত ওজন শারীরিক নানা সমস্যার কারণ হতে পারে। এজন্যই বিশেষজ্ঞরা বলেন, সুস্থ থাকতে চাইলে আগে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে ওজন। মহামারি করোনার শুরু থেতেই চিকিৎসকরা পরামর্শ দিয়ে আসছেন, সবাই যেন ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখেন। না হলে করোনায় মৃত্যুঝুঁকি রয়েছে।

ঠিক একইভাবে ওজন বেশি হলে মাড়ির সমস্যাও বাড়তে পারে বলে জানা গেছে নতুন এক গবেষণায়। সম্প্রতি একটি গবেষণা বলছে, ওজন বেশি থাকলে মাড়ির সমস্যা দেখা দিতে বাড়ে। গবেষণাটি প্রকাশ পেয়েছে ডেন্টাল রিসার্চ জার্নালে।

গবেষণাপত্রের নাম ‘নোভেল প্রিঅস্টিওক্লাস্ট পপুলেশন ইন ওবেসিটি অ্যাসোসিয়েটেড পেরিওডেন্টাল ডিজিজ’। এক্ষেত্রে মাইলেয়ড ডেরাইভড সাপ্রেসর সেলের (এমডিএসসি) কারণে এই সমস্যা দেখা যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

এই গবেষণার লেখক ও বাফেলো বিশ্ববিদ্য়ালয়ের বিজ্ঞানী খুয়ান কোয়াক বলছেন, ‘আমাদের এই গবেষণা এমডিএসসি নিয়ে নতুন দিশা দেখাল। গবেষণার তথ্য বলছে, স্থূলতা মাড়ির সমস্যা বাড়াতে পারে। তাই এখনই সাবধান হতে হবে। অতিরিক্ত ওজন নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে ও মুখের স্বাস্ত্যের প্রতি নজর দিতে হবে।’

স্থূলতা নিয়ন্ত্রণ করবেন কীভাবে?

>> মিষ্টিজাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন।
>> প্রতিবেলায় অল্প করে খাবার খান। প্রয়োজনে একাধিকবার খান, তবে একসঙ্গে অতিরিক্ত খাবেন না।
>> তৈলাক্ত খাবার কম খেতে হবে।
>> লাল মাংস যতটা সম্ভব এড়িয়ে যান।
>> বাইরের খাবার খাওয়া বন্ধ করুন।
>> খাদ্যতালিকায় ফাইবারজাতীয় খাবার রাখুন।
>> দিনে অন্তত ৩০ মিনিট ব্যায়াম করেতই হবে। তবেই ওজন কমাতে ও নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবেন।

মুখের স্বাস্থ্য ভালো রাখবেন যেভাবে-

>> দিনে অন্তত দু’বার ব্রাশ করুন। সকালের নাস্তার পর ও রাতে খাওয়ার পর।
>> দাঁত ব্রাশ করার সময় উপর-নিচে সমানভাবে মাজুন।
>> খাওয়ার পরপরই ব্রাশ করবেন না। অন্তত আধা ঘণ্টা পর করুন।
>> বেশি চিনি জাতীয় খাবার খেলে এমনিতেই দাঁতের সমস্যা বাড়ে। তাই সেগুলো কম খান।
>> দুধ বা দুগ্ধজাত খাবার বেশি করে খান। এই খাবারে আছে পর্যাপ্ত ক্যালসিয়াম। যা দাঁত ও মাড়ির স্বাস্থ্য ভালো রাখে।
>> দাঁতের যে কোনো সমস্যা দেখলেই দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

সূত্র: সায়েন্স ডেইলি

জেএমএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]