স্টাইলিশ লেয়ার কাট


প্রকাশিত: ০৪:২২ এএম, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

চুলের স্টাইলে লেয়ার কাট যায় বিভিন্ন দৈর্ঘ্যে কাটা যায়। তবে কাটের ধরন নির্ভর করে চুলের ঘনত্ব আর দৈর্ঘ্যের ওপর। কিছু লেয়ারের সংখ্যা হয়ে থাকে বেশি এবং একটি থেকে অন্যটি কাছাকাছি হয়। কখনো কখনো চোখের নিচ থেকে শুরু হয়ে কাঁধ পর্যন্ত নামতে থাকে।

চুলের ধরন বুঝে
কোঁকড়া চুলে মানায় স্লাইস ভলিউম লেয়ার। খুব ছোট চুলে মিডিয়াম, স্লাইস বা ভলিউম- কোনোটাই মানানসই নয়। তবে শর্ট বা ইমো লেয়ার ছোট চুলে মানানসই। লম্ব্বা চুলের জন্য লং লেয়ার। দুই পাশের চুল লেয়ার করে কেটে পেছনের অংশে স্ট্রেইট বা ভি কাট দিতে পারেন। প্রথম লেয়ারটি চোখের পাশ ঘেঁষে শুরু হয়ে ক্রমে কাঁধ পর্যন্ত আসবে। এ ধরনের হেয়ার কাটটি লম্বাটে বা ডিম্বাকার মুখের সঙ্গে বেশ মানিয়ে যায়।

নানা রকমের লেয়ার কাট

শর্ট
যাদের ছোট ও স্ট্রেইট চুল তাদের জন্য শর্ট লেয়ার মানানসই। এই স্টাইলে চোখের পাশ থেকে লেয়ার শুরু হয়। পেছনে স্টেপ কাট আর চুলের লেংথ থাকবে গলা পর্যন্ত। শর্ট লেয়ারের রয়েছে নানা স্টাইল। যেমন- কোঁকড়া চুলের জন্য শর্ট লেয়ার, মুলেট লেয়ার ও শর্ট ব্লান্ট লেয়ার। বব কাটের জন্য শর্ট লেয়ার হবে সামনে লম্বা রেখে।

মিডিয়াম
মাঝারি লেংথের চুলের জন্য মিডিয়াম লেয়ার ভালো। ডিম্বাকার, গোলাকার ও লম্বাটে মুখের সঙ্গে মানায়, তবে চুল স্ট্রেইট হলে ভালো হয়। এই স্টাইলে সিঁথি মাঝে বা পাশে হলে খারাপ দেখায় না। ইচ্ছেমতো হেয়ার এক্সসেরিজ ব্যবহার করা যায়।

ইমো
যাদের মুখের গড়ন পাতলা ও ছোট, এই কাট তাদের জন্য। স্ট্রেইট ও ছোট চুলে মানানসই। এর কাট তেড়ছা বলে চুলে রং করা থাকলে খুব সহজেই চোখে পড়ে।

ভলিউম
বড় গড়নের মুখের সঙ্গে মানানসই। ঘন ও বড় চুলে বেশ চলছে। এই কাটে চুলের ভলিউম অনেক বেশি দেখায়। অবশ্য চুল হতে হবে স্ট্রেইট। এই স্টাইলে লেয়ার শুরু হয় কানের দুই পাশ থেকে এবং সামনের ও পেছনের চুল সমান ভাগ করে লেয়ার কাটা হয়।

স্লাইস
যেকোনো মুখের গড়নের সঙ্গে মানিয়ে যায় এই হেয়ার কাট। চুলের লেন্থ বুঝে শর্ট, লং ও মিডিয়াম লেয়ার করতে পারেন। যত বেশি লেয়ার হবে, তত সুন্দর দেখাবে। অল্প কোঁকড়া বা রুক্ষ চুলেও স্লাইস লেয়ার করা যায়।

লেয়ার শ্যাগ
মিডিয়াম লেংথের চুলের জন্য। গোলাকার, লম্বাটে বা ডিম্বাকার মুখের গড়নে এবং যেকোনো ধরনের চুলে ভালো মানায়। স্টাইলটিকে বলা যেতে পারে ইমো লেয়ারের আরেক সংস্করণ। এখন বেশি লেয়ার করে চুল কাটছে মেয়েরা, যাতে চুলের ভলিউম বেশি দেখায়।

ফরোয়ার্ড গ্র্যাজুয়েশন
মিডিয়াম ও লং লেংথের চুলের জন্য মানানসই। এই স্টাইলে চুলের ধরন হবে সোজা ও ঢেউ খেলানো। থুতনির নিচ থেকে চুলের আগা পর্যন্ত সামনের দিকে লেয়ার করা হয়। গ্র্যাজুয়ালি লেয়ারটি থাকে বলে এই স্টাইলকে ফরোয়ার্ড গ্র্যাজুয়েশন লেয়ার বলা হয়। যাদের গলা ছোট, হাইট কম, তাদের জন্য মানানসই নয়। মিডিয়াম লেংথ, স্ট্রেইট চুল ও মিডিয়াম হাইট বা লম্বা মেয়েদের জন্য এটি মানানসই।

ডিসকানেকটেড
এ লেয়ার কাট স্ট্রেইট চুলে ভালো মানায়। এতে চুলের ভলিউম বেশি মনে হয়।

এইচএন/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]