শুষ্ক ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখার উপায়


প্রকাশিত: ০৬:৫৬ এএম, ২৫ অক্টোবর ২০১৫

ময়েশ্চারাইজিং হলো ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখার অন্যতম উপায়। বাজারে কিনতে পাওয়া যায় বিভিন্ন রকমের ময়েশ্চারাইজার। তবে প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করলে ত্বক হয়ে উঠবে আরো আকর্ষণীয় ও স্বাস্থ্যোজ্জ্বল। চলুন জেনে নিই, শুষ্ক ত্বকের জন্য ঘরোয়া উপায়ে ময়েশ্চারাইজিং করবেন কীভাবে-

ত্বক ভালো করে পরিষ্কার করে প্রতিদিন বিকেলে অলিভ অয়েল বা ভিটামিন ই সমৃদ্ধ তেল লাগান।

ভিটামিন ও ফ্যাট সমৃদ্ধ নারকেল তেল ত্বক নরম ও মসৃণ রাখে। নারকেল তেলের সঙ্গে কোকোয়া বাটার মিশিয়ে ত্বকে লাগান। এই ময়েশ্চারাইজার ত্বকের ওপর প্রতিরক্ষামূলক পরত তৈরি করে আর্দ্রতা বজায় রাখতে সাহায্য করে।

অলিভ অয়েল, লেবুর রস, ডিমের সাদা অংশ ভালো করে মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন ১৫ মিনিট। ঈষদুষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই মিশ্রণটি খুব ভালো প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার।

আমন্ড অয়েল, গ্লিসারিন মিশিয়ে বোতলে রাখুন। সপ্তাহে একবার ত্বকে মাসাজ করুন।

কুসুম গরম পানিতে কাঠবাদাম ভিজিয়ে রাখুন। এর খোসা তুলে কাঠবাদাম পিষে নিন। এর সাথে মধু ও অল্প একটু গরম পানি মেশান। মিশ্রণটি ঠাণ্ডা করে ত্বকে লাগান। ত্বক উজ্জ্বল হবে।

মধু ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখে। লেবুর রস, দই, ডিমের সাদা অংশ, মধু ভালো করে মিশিয়ে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। এরপর কুসুম গরম পানিতে ধুয়ে ফেলুন। মধুর সঙ্গে গুঁড়ো দুধ মিশিয়েও লাগাতে পারেন।

কয়েকটি খেজুর মিহি করে বেটে নিন। খেজুরবাটা আমন্ড অয়েলের সঙ্গে মিশিয়ে নিয়ে ফুটিয়ে নিন। ঘন হয়ে এলে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে কাচের পাত্রে রাখুন। গোসলের আগে এই মিশ্রণ পুরো গা-হাত-পায়ে আলতো করে মাসাজ করে তারপর গোসল করে ফেলুন।

নারকেল তেল, আমন্ড অয়েল, অলিভ অয়েল ৩:২:১ অনুপাতে মিশিয়ে প্রতিদিন গোসলের পরে সারা গায়ে মাখুন। ত্বকে টানভাব থাকবে না।

এইচএন/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]