সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী দুটি কবিতা

সাহিত্য ডেস্ক সাহিত্য ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৩৪ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০২১

খান মুহাম্মদ রুমেল

অনিমেষই বাংলাদেশ

জ্বলছে পীরগঞ্জ মাঝিপাড়া
জ্বলছে নোয়াখালী কুমিল্লা
জ্বলছে বাংলাদেশের হৃদয়!
শ্যামল বাতাস ভরা নদীটাকে—
আজ মনে হয় নরকের দুয়ার।

স্তব্ধ সিঁদুরের কৌটা—পড়ে আছে বেসামাল।
সন্তান কোলে বসে আছে আরতিবালা—
ভয় নিয়ে চোখে নির্বাক দিশেহারা!
মন্দিরে দিয়েছে আগুন, দিয়েছে বসত ঘরে
ধর্মান্ধ অসুরের কুটিল চ্যালা।

তবুও
আমার বন্ধু অনিমেষ কোথাও যাবে না—
এ মাটি পবিত্র মাটি ছেড়ে!
অনিমেষ যেতে পারে না—
এই রক্তস্নাত শ্যামলে তার অধিকার সমান।
যতই মারো, যতই পোড়াও—
অনিমেষ-আরতিবালাই বাংলাদেশ!

****

মধ্যরাতের পরে...

এক চিলতে জানালায় বিশাল এক চাঁদ
ঝলকে দিয়েছিল চোখজোড়া আমার
গতকাল মধ্যরাতের পরের প্রহরে!
পাশ ফিরে শুতে শুতে পড়ছিল মনে
তোমার কথা, চাঁদটা কি দেখছো তুমি?

অতল ঘুমে হারিয়ে গেলাম এরপর
ঘুম ভেঙে দেখি ঝলমলে সূর্য!
ঝকঝকে আকাশে সেই থেকে খুঁজছি
রুপার থালা চাঁদ এবং তোমাকে!
পাইনি কোথাও, পাচ্ছি না একেবারেই।

তুমি কি আসবে আবার রাতের ’পরে!
অপেক্ষায় অপেক্ষায় কাটছে দিন...

বিলাসী এমন ভাবনার কালে—
পুড়লো যে ধর্মঘর আমার বন্ধু অনিমেষের।
মধ্যরাতের পরে আতঙ্কনীল প্রহরে—
লেলিহান আগুনশিখায় পুড়লো বসত!

তারপরেও
কোন সাহসে তোমায় আমি বলি—
ভালোবাসার কথা?
আমাকে ধিক্কার দাও প্রিয়তমা
ব্যর্থ কাপুরুষ আমি!

এসইউ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]