স্বাধীনতা যুদ্ধে ৫৮ ‘বিদেশি বন্ধু’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:১০ পিএম, ১২ নভেম্বর ২০২১

বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে যারা বিশেষভাবে অবদান রেখে স্বাধীনতাকে তরান্বিত করেছেন তাদের মধ্যে ৫৮ জন বিদেশি নাগরিককে নিয়ে গ্রন্থ রচনা করেছেন বিশিষ্ট গবেষক মোহাম্মদ আবদুল গণি।

শুক্রবার (১২ নভেম্বর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলনায়তনে ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে বিদেশি বন্ধু’ শিরোনামের বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন গুণিজনরা। এ উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করে এবিসি পাবলিকেশন্স।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য ও বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম ঠাণ্ডু, বিশেষ অতিথি ছিলেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের কার্যনির্বাহী সভাপতি ড. মশিউর মালেক, যুগ্ম-সম্পাদক রাশিদা হক কনিকা। মুখ্য আলোচক ছিলেন ড. মো. সানোয়ার জাহান ভূঁইয়া, বিশেষ আলোচক ছিলেন ড. লিপন মুস্তাফিজ।

বক্তারা বলেন, মোহাম্মদ আবদুল গণির ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে বিদেশি বন্ধু’ গ্রন্থটিতে শুধু বাঙালি জাতির অকৃত্রিম বন্ধুদের কথাই আলোচিত হয়নি, এতে যুদ্ধকালে আন্তর্জাতিক রাজনীতির প্রেক্ষাপট ঐতিহাসিক তথ্য ও দলিলাদির মাধ্যমে গবেষণালব্ধ বিষয়বস্তুর মাধ্যমে উপস্থাপিত হয়েছে। বিশেষ করে স্বাধীনতা যুদ্ধে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের সাহায্য সহযোগিতার কথা সবিস্তারে বর্ণনা করা হয়েছে। বইটার গবেষণালব্ধ বিষয়বস্তু পাঠকদের ইতিহাসজ্ঞতা সমৃদ্ধ করার পাশাপাশি জাতীয় ইতিহাসকে সমৃদ্ধ করবে বলে প্রত্যাশা করেন তারা।

গ্রন্থটিতে যাদের কথা উঠে এসেছে তারা হলেন- ইন্দিরা গান্ধী, জে এফ আর জ্যাকব, নিকোলাই পদগর্ণি, জর্জ হ্যারিসন, অ্যাডওয়ার্ড কেনেডি, জোসেফ ও কলেন, কবি অ্যালেন গিন্সবার্গ, পল কনেট দপ্ততি ফাদার রিচার্ড টিম, ডব্লিউ এ এস ওডারল্যান্ড (বীরপ্রতীক), অ্যান্থনি মাসকারেনহাস, সায়মন ড্রিং, সিডনি শ্যানবার্গ, এয়ার মার্শাল আসগর খান, জোয়ান বয়েজ, জন এফ কেনেডি, মাওলানা সাইয়্যেদ আসআদ, ফাদার মরিনো রিগনসহ ৫৮ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি।

মোহাম্মদ আবদুল গণি বলেন, যতদিন বাংলাদেশ থাকবে, ততদিন বিদেশি এসব বন্ধুদের কথা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবে এ দেশের মানুষ। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ সৈনিক হিসেবে তার আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে এই গ্রন্থটির কাজ হাতে নিয়েছি। দেশ, মাটি ও মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাওয়াই আমার প্রত্যয়।

আইএইচআর/এআরএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]