চর্যাপদ সাহিত্য একাডেমির তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

সাহিত্য ডেস্ক
সাহিত্য ডেস্ক সাহিত্য ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৪৪ পিএম, ১১ জুন ২০২২

চতুর্থ বর্ষে পা রাখছে প্রগতিশীল প্রতিষ্ঠান চর্যাপদ সাহিত্য একাডেমি। গত ১০ জুন বিকেলে চাঁদপুরের পালপাড়ায় একাডেমির কার্যালয়ে পালন করা হয় তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন উদীচী জেলা সংসদের সাবেক সভাপতি কবি অধ্যাপক দুলাল চন্দ্র দাস। নুরুন্নাহার মুন্নির সভাপতিত্বে ও জয়ন্তী ভৌমিকের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপমহাপরিচালক দুখাই মুহাম্মাদ।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি আয়শা আক্তার রুপা, নিয়ন্ত্রণ পরিষদ চেয়ারম্যান আসাদুল্লা কাহাফ, মহাপরিচালক রফিকুজ্জামান রণি, পরিচালক শিউলী মজুমদার ও খোরশেদ আলম বিপ্লব, পর্যবেক্ষক ও ন্যায়পাল দিলীপ ঘোষ, সহকারী পরিচালক ফেরারী প্রিন্স, নির্বাহী পরিচালক আইরিন সুলতানা লিমা, উপ-নির্বাহী পরিচালক ফাতেমা আক্তার শিল্পী, নির্বাহী সদস্য কামরুন্নাহার বিউটি ও উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক নন্দিতা দাস।

jagonews24

সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা রফিকুজ্জামান রণি বলেন, ‘২০১৯ সালের এমন একটি দিনে প্রতিষ্ঠিত হয় চর্যাপদ সাহিত্য একাডেমি। মাত্র ৩ বছরে প্রায় ৬,৫০০ বই উপহার দিয়েছি আমরা। ‘আদি এবং অন্তে সত্য ও সুন্দরে আছি’ স্লোগানে এগিয়ে চলা এ প্রতিষ্ঠান অনেক গুণীর হাতে পুরস্কার তুলে দিয়েছে।’

প্রধান অতিথি অধ্যাপক দুলাল চন্দ্র দাস বলেন, ‘চর্যাপদ নামে একটি সাহিত্য সংগঠন চাঁদপুরের মাটিতে জন্ম হয়েছে জেনে খুব আনন্দ লাগছে। এ সংগঠনের প্রতিটি কর্মসূচি আমার ভালো লাগে। বাংলা সাহিত্যের হাজার বছরের ঐতিহ্যকে লালন করে বহুদূর এগিয়ে যাবে সংগঠনটি।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন হাইমচর লেখক ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা ইমরান শাকির, চর্যাপদ একাডেমির উপপরিচালক জান্নাতুল ফেরদাউ সুপ্ত, প্রচার ও প্রকাশনা পরিচালক নাজমুল ইসলাম, তথ্য পরিচালক জান্নাতুল মাওয়া, নির্বাহী সদস্য শ্রাবণী মীম ও দিপু।

অনুষ্ঠানে আবৃত্তি করেন দোনাগাজী পদকপ্রাপ্ত বাচিকশিল্পী দিপান্বিতা দাস। বই উপহার কর্মসূচি পালন শেষে শোভাযাত্রা বের করা হয়। মেঘনা পাড়ের সবুজ আলো-ছায়ায় ভ্রমণের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানটি শেষ হয়।

এসইউ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]