ব্লু-ইকোনমি থেকে সুবিধা পেতে আঞ্চলিক সমন্বয়ের ওপর গুরুত্বারোপ


প্রকাশিত: ০৩:৫৯ পিএম, ০৪ জুন ২০১৭

ব্লু-ইকোনমি থেকে অর্থনৈতিক সুবিধা অর্জন করতে হলে বঙ্গোপসাগর কেন্দ্রিক দেশসমূহের মধ্যে আঞ্চলিক যোগাযোগ বাড়াতে হবে। ‘ব্লু-ইকোনমি : বাংলাদেশ এবং বে-অব-বেঙ্গল রিজিওনাল কো-অপারেশন’ শীর্ষক সেমিনারে বক্তারা আঞ্চলিক যোগাযোগের বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন।

বক্তারা বলেন, বঙ্গোপসাগর কেন্দ্রিক অঞ্চলের ইতিহাস বহু বছরের পুরনো। এটি বিমসটেক সদস্য দেশসমূহকে আঞ্চলিক সহযোগিতা ও যোগাযোগ বৃদ্ধিতে উদ্বুদ্ধ করে। একই সঙ্গে, ব্লু-ইকোনমি বাস্তবায়নের মাধ্যমে এ অঞ্চলের জনগণের জন্য অর্থনৈতিক সুবিধা নিশ্চিত করতে পারে।

রোববার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে বেসরকারি সংস্থা কোস্টাল অ্যাসোসিয়েশন ফর সোসাল ট্রান্সফরমেশন ট্রাস্ট (কোস্ট) এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। আমেরিকান সেন্টারের সহযোগিতায় এবং কোস্ট ট্রাস্টের উদ্যোগে সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন কোস্ট ট্রাস্টের নির্বাহী পরিচালক রেজাউল করিম চৌধুরী।

উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় কমিটির সভাপতি ড. দীপু মনি, প্রধান অতিথি মৎস ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ।

সেমিনারে বক্তব্য রাখেন, বিশেষ অতিথি বিমসটেকের মহাসচিব রাষ্ট্রদূত সুমিত নাখান্দালা, রয়েল ভুটান অ্যাম্বাসির ফাস্ট সেক্রেটারি দোমাং, শ্রীলঙ্কার হাইকমিশনার ইয়াসুজা গুনাসেকারা, আমেরিকান সেন্টারের কূটনৈতিক কর্মকর্তা রেক্স মোজের, বাংলাদেশ নৌ-বাহিনীর ব্লু-ইকোনমি সেলের প্রধান কমডোর এ এ মামুন চৌধুরী, কোস্ট গার্ডের ক্যাপ্টেন মামুনুর রশীদ, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আফরোজা খাতুন, সিপিআরডির প্রধান সামসুদ্দোহা, দ্বীপ উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

এতে ব্লু-ইকোনমির ওপর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক লইলুফার ইয়াসমিন এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মেরিন সাইন্সের অধ্যাপক শাহাদাৎ হোসেন। এছাড়া বিমসটেক সদস্য দেশসমূহের বিভিন্ন লেখকদের লেখার ওপর একটি সারাংশ উপস্থাপন করেন কোস্ট ট্রাস্টের পরিচালক সনৎ কুমার ভৌমিক।

অধ্যাপক শাহাদাৎ হোসেন বলেন, ভবিষ্যতে অর্থনীতির চালিকা শক্তি হতে পারে ব্লু-ইকোনমি। তবে বাংলাদেশের এক্ষেত্রে সক্ষমতার ঘাটতি রয়েছে।

অধ্যাপক লইলুফার বলেন, একবিংশ শতাব্দী হচ্ছে আঞ্চলিক যোগাযোগ প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্র এবং আমাদের জ্ঞান ও অর্থনীতির বিষয়। বিমসটেক হচ্ছে আমাদের জন্য একটি অন্যরকম সুযোগ।

রেক্স মেজার বলেন, বিমসটেক অঞ্চলে জনগণের মধ্যে যোগাযোগ বৃদ্ধি করার ক্ষেত্রে আমেরিকান এলামুনিদের এই উদ্যোগ প্রশংসনীয়।

দোমাং বলেন, আঞ্চলিক সহযোগিতার ক্ষেত্রে বিসমটেক এবং বে-অব-বেঙ্গল সদস্য দেশসমূহের মধ্যে উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে।

বিমসটেক মহাসচিব সুমতি নাখান্দালা বলেন, বে-অব-বেঙ্গল দেশসমূহরে মধ্যে আঞ্চলিক সহযোগিতার বিষয়টি নতুন নয়। এ অঞ্চলের ক্ষেত্রে ১৪টি সহযোগিতার বিষয় নির্ধারণ করা হয়েছে।

ভারতের গোয়ায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিসমটেক নেতারা ব্লু-ইকোনমি ও মাউন্টেন ইকোনমির ওপর গুরুত্ব দিয়েছেন।

প্রতিমন্ত্রী নারায়র চন্দ্র চন্দ বলেন, সাগর কেন্দিক টেকসই অর্থনীতির বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে আমাদের সরকার অত্যন্ত সচেতন।

ড. দীপু মনি বলেন, সঠিক রাজনীতি ও সঠিক নেতৃত্বের কারণেই আমরা বঙ্গোপসাগরের ওপর কর্তৃত্ব লাভ করতে পেরেছি। একই সঙ্গে বিমসটেক সচিবালয় ঢাকায় স্থাপন করতে পেরেছি এবং এই রাজনীতির ধারা অব্যাহত থাকা উচিত।

এমএ/এমআরএম/এমএআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]