তিন বাহিনীর প্রধানের মেয়াদ চার বছর রেখে সংসদে বিল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৫১ পিএম, ০৯ জানুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০৮:৫৬ পিএম, ০৯ জানুয়ারি ২০১৮
তিন বাহিনীর প্রধানের মেয়াদ চার বছর রেখে সংসদে বিল

সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর প্রধানের মেয়াদ সর্বোচ্চ চার বছর নির্ধারণ করে এ সংক্রান্ত বিল সংসদে উত্থাতি হয়েছে। ‘প্রতিরক্ষা বাহিনীগুলোর প্রধানের (নিয়োগ, বেতন, ভাতা এবং অন্যান্য সুবিধা) বিল- ২০১৮’ মঙ্গলবার সংসদে উত্থাপন করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

সংবিধানের ৬২ (১) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী প্রতিরক্ষা বাহিনী প্রধানের নিয়োগ ও বেতন-ভাতা আইন দিয়ে নির্ধারণ করতে বিলটি আনা হয়েছে।

পরে বিলটি ১৫ দিনের মধ্যে পরীক্ষা করে সংসদে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়েছে।

এতদিন জয়েন্ট সার্ভিসেস ইন্সট্রাকশনস (জেএসআই) নামে একটি সার্কুলার দিয়ে এ কাজ চলত। এতে বাহিনী প্রধান পদে চাকরির সময় নির্ধারিত ছিল না। চাকরির বয়স ৫৯ বছর হলে অবসরে যেতেন বাহিনী প্রধানরা।

প্রস্তাবিত আইন কার্যকর হলে একটি বাহিনীর প্রধান তার অবসরের বয়স ৫৯ বছর পার হওয়ার পরও নির্ধারিত চার বছর দায়িত্ব পালন করতে পারবেন, যদি সরকার তাকে অবসরে না পাঠায়।

বিলে বলা হয়েছে, চার বছরের জন্য তিন বাহিনীর প্রধান নিয়োগপ্রাপ্ত হবেন। রাষ্ট্রপতি তাদের নিয়োগ দেবেন। বাহিনী প্রধানদের নিয়োগের মেয়াদ হবে একসঙ্গে বা বর্ধিতকরণসহ, নিয়োগ প্রদানের তারিখ হতে অনূর্ধ্ব চার বছর হবে। বাহিনীর প্রধান পদ থেকে অবসর নেয়ার দিন থেকেই তিনি অবসরপ্রাপ্ত বলে গণ্য হবেন। বেসামরিক কর্মকর্তাদের মতো এক বছরের অবসরোত্তর ছুটিও (পিআরএল) পাবেন। কোনো বাহিনী প্রধান অবসর নেয়ার পর কোনো সামরিক বা বেসামরিক পদে পুনঃনিয়োগ লাভের যোগ্য হবেন না। তবে চুক্তিভিত্তিতে কোনো বেসামরিক পদে নিয়োগ পেতে পারেন।

অবসরপ্রাপ্ত তিন বাহিনীর প্রধান প্রজাতন্ত্রের কেনো কাজে সামরিক বা বেসামরিক নিয়োগের অযোগ্য বিবেচিত হলেও সাংবিধনিক পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে বাধা থাকবে না।

বর্তমান বেতন কাঠামো অনুযায়ী বাহিনীর প্রধান মাসে ৮৬ হাজার টাকা মূল বেতনের সঙ্গে অন্যান্য ভাতা ও সুযোগ-সুবিধা পান। মূল বেতনের এ পরিমাণ মন্ত্রিপরিষদ সচিবের বেতনের সমান।

বাহিনী প্রধান বিশেষ আবাসিক সুবিধা, আবাসিক সংশ্লিষ্ট সুবিধা, সার্বক্ষণিক গাড়ি, সামরিক হাসপাতালে বিনা খরচে নিজের ও পরিবারের সদস্যদের চিকিৎসা, রেশন, ভবিষ্যৎ তহবিল ও সহায়ক জনবল সুবিধার পাশাপাশি এককালীন আউটফিট ভাতা (২৩ হাজার ৯৯০ টাকা), ভ্রমণ ভাতা, উৎসব ভাতা, নববর্ষ ভাতা ও শ্রান্তিবিনোদন ভাতা পেয়ে থাকেন।

এছাড়া বাহিনী প্রধান প্রতি মাসে ডিস্টারবেন্স ভাতা (৭০৩ টাকা), কমান্ড ভাতা (৩ হাজার ২৫০ টাকা), যোগ্যতা ভাতা (৮০৩ টাকা), প্রতিরক্ষা সার্ভিস ভাতা (৬ হাজার টাকা), আপ্যায়ন ভাতা (২ হাজার টাকা), কিট ভাতা (১ হাজার ২০০ টাকা), ক্ষতিপূরণার্থ ব্যাটম্যান রশদ ভাতা (১ হাজার ৮৫ টাকা), ব্যাটম্যান ভাতা (৬০০ টাকা) পাবেন।

এর বাইরে, বিধিদ্বারা নির্ধারিত হারে তিন বাহিনীর প্রধান উড্ডয়ন ভাতা, শিক্ষা সহায়ক ভাতা, পদক ভাতা এবং প্রচলিত অন্যান্য ভাতা পাবেন।

এইচএস/জেডএ/আইআই