সংসদ থেকে বিরোধী দলের ওয়াক আউট

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৩১ পিএম, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

সংসদে ‘কথা বলার সুযোগ’ না পেয়ে জাতীয় সংসদ থেকে ওয়াক আউট করেছে বিরোধী দল জাতীয় পার্টি। সরকারি দলের এক সংসদ সদস্যের আনা সিদ্ধান্ত প্রস্তাব প্রত্যাহার নিয়ে কথা বলার সুযোগ না পেয়ে তারা ওয়াক আউটক করেন। এ সময় অল্প সময়ের জন্য জাতীয় সংসদে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে সরকারি দলের চিফ হুইপ, মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী ও সদস্যদের চাপে প্রস্তাবটি প্রত্যাহার করা হয়।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদের বেসরকারি সদস্য দিবসে নওগাঁ-৬ আসনের সংসদ সদস্য ইসরাফিল আলম ‘পরিবেশ দূষণের সঙ্গে সম্পৃক্ত দেশের ইটভাটা, কলকারখানা ও শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলো পরিবেশ সম্মত করার ব্যবস্থা করা হোক’ শিরোনামে একটি প্রস্তাব উত্থাপন করেন। প্রস্তাব উত্থাপনকালে ইসরাফিল আলম জলবায়ু ট্রাস্ট ফান্ডের টাকা বরাদ্দে অঞ্চলভিত্তিক বৈষম্যের অভিযোগ তুললে সংসদ সদস্যরা টেবিল চাপড়িয়ে তাতে সমর্থন জানান।

জবাবে পরিবেশ ও বন উপমন্ত্রী আব্দুল্লাহ আল জ্যাকব পরিবেশ দূষণরোধে সরকার গৃহীত পদক্ষেপগুলো বর্ণনা করলেও জলবায়ু ট্রাস্ট ফান্ডের টাকার বরাদ্দের বিষয়ে কোনো কথা বলেননি। এতে ইসরাফিল আলম প্রস্তাবটি প্রত্যাহার না করে সংসদে ভোট দাবি করলে এ অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়।

এ সময়ে সরকারি দলের চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজ, হুইপ ইকবালুর রহীম, সাহাব উদ্দিন, প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু ও শাহরিয়ার আলম মিলে ইসরাফিল আলমকে প্রস্তাবটি প্রত্যাহারের অনুরোধ জানান। ইসরাফিল আলম তার অবস্থানে অনড় থাকলে বিধিবহির্ভূতভাবেই ফ্লোর নিয়ে উপমন্ত্রী বলেন, উত্থাপিত প্রস্তাবটি ইটভাটা নিয়ে এখানে জলবায়ু ট্রাস্ট ফান্ডের বিষয়ে কোনো প্রস্তাব নেই। তিনি এ বিষয়ে পৃথক নোটিশ দেয়ার অনুরোধ জানান। সরকারি দলের সদস্যদের চাপাচাপিতে ইসরাফিল আলম তার প্রস্তাবটি প্রত্যাহার করে নেন।

এ সময়ে জাতীয় পার্টির কাজী ফিরোজ রশীদ, বিরোধী দলের চিফ হুইপ তাজুল ইসলাম চৌধুরীসহ আরও কয়েকজন বিষয়টি বিধিবহির্ভূত হয়নি বলে অভিযোগ করেন এবং সংসদের ফ্লোর চান। এ সময়ে ডেপুটি স্পিকার কাউকে ফ্লোর না দিয়ে বলেন, বিধি অনুযায়ী আপনারা এ প্রস্তাবে অংশ নন। পরে এর প্রতিবাদে জাতীয় পার্টির সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদের নেতৃত্বে ওয়াক আউট করে বিরোধী দল।

এইচএস/জেএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]