শিক্ষার্থীদের চোখ বাঁধা তথ্য সঠিক নয় : দাবি ডিবির

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৩৭ পিএম, ১৭ এপ্রিল ২০১৮

কোটা সংস্কার আন্দোলনের ৩ নেতাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নেয়ার সময় তাদের চোখ বাঁধা হয়নি বলে দাবি করেছেন মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের যুগ্ম কমিশনার আবদুল বাতেন।

মঙ্গলবার ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

আবদুল বাতেন বলেন, ‘তিন নেতাকে তুলে নেয়ার পর তাদের চোখ বাঁধার বিষয়টি সত্য নয়, এটা ভুল বোঝাবুঝি।’

ইউরোপের ভিসা প্রতারণার ঘটনায় ৪ জনকে গ্রেফতারের বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনটি আয়োজন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে আবদুল বাতেন বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসায় হামলার ঘটনায় করা মামলার তদন্ত করছে ডিবি। এ জন্য একাধিক শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন সময়ে ডিবি কার্যালয়ে ডাকা হচ্ছে। আন্দোলন নিয়ে ডিবির কোনো অবস্থান নেই। হামলার ঘটনার তদন্তের যথেষ্ট অগ্রগতি হয়েছে।

এর আগে সোমবার কোটা সংস্কার আন্দোলনের সঙ্গে জড়িত বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির তিন যুগ্ম আহ্বায়ককে একটি কালো গ্লাসের মাইক্রোবাসে করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সামনে থেকে তুলে নিয়ে মিন্টো রোডের ডিবি কার্যালয় নিয়ে আনা হয়। ওই তিন যুগ্ম আহ্বায়ক হচ্ছেন রাশেদ খান, নুরুল হক ও ফারুক হাসান।

এ ঘটনার পরে শিক্ষার্থীরা এই নিয়ে ফেসবুকে প্রতিবাদ করতে থাকেন। ঘণ্টাখানেক পর তাদের ছেড়ে দেয়া হয়।

তাদের ছেড়ে দেয়ার পর ঢাবি ক্যাম্পাসে এক সংবাদ সম্মেলনে ৩ শিক্ষার্থী অভিযোগ করেন, তাদের চোখ বেঁধে ও হেলমেট পড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

এআর/এসআর/আরআইপি