সাবেক সেনা কর্মকর্তাকে উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৩৮ পিএম, ১৭ আগস্ট ২০১৮

সাবেক সেনা কর্মকর্তা হাসিনুর রহমানকে উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছে তার পরিবার।

শুক্রবার সকালে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপের্টার্স অ্যাসোসিয়েশন-ক্র্যাব কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি জানান নিখোঁজ হাসিনুরের স্ত্রী শামিমা আক্তার।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘দেশের জন্য আমরণ সময় দেন সেনা কর্মকর্তারা। লড়াই করেন দেশের স্বাধীনতা আর সার্বভৌমত্ব অক্ষুন্ন রাখতে। দেশের জন্যে লড়াই করে বীবপ্রতীক খেতাব পেয়েছেন তিনি (হাসিনুর রহমান)। প্রতিদান হিসেবে সেই অবসরপ্রাপ্ত লে. কর্নেল হাসিনুর রহমানকে বাসার কাছ থেকে কে বা কারা তুলে নিয়ে গেছে। দুই সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তার সন্ধান দিতে পারছে না। স্বামীর সন্ধান না মেলায় আমি অসহায়। দ্বারে দ্বারে ঘুরছি। নিরুপায় হয়ে স্বামীকে উদ্ধারের জন্যে স্ত্রী হিসেবে দেশের ও সেনাবাহিনীর অভিভাবক প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।’

শামিমা আক্তার আরও বলেন, ‘আমার স্বামী কোনো দোষ করেনি, তিনি একজন দেশপ্রেমিক সাধারণ মানুষ। স্বজন হারানোর বেদনা প্রধানমন্ত্রী বুঝবেন, তাই ওনার কাছে আমার দাবি- আমার স্বামীকে খুঁজে বের করার ব্যবস্থা করবেন।’

তিনি জানান, গত ৮ আগস্ট রাত আনুমানিক ১০টা দিকে মিরপুরের পল্লবীর ডিওএইচএসের বাসার সামনে থেকে ডিবি পুলিশের জ্যাকেট পরা কয়েকজন লোক হাসিনুর রহমানকে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। বিষয়টি উল্লেখ করে গত ৯ আগস্ট পল্লবী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন তিনি।

সংবাদ সম্মলনে শামিমা আক্তারের ভাই ওয়াখিল, ডাক্তার এহতেশামসহ বেশ কয়েজন নিকটাত্মীয় উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, হাসিনুর রহমান সেনাবাহিনীকে চাকরির সময় রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় দণ্ডিত হয়ে পাঁচ বছরের জেল খেটে ২০১৪ সালে মুক্তি পেয়েছিলেন। তিনি এক সময় র‌্যাব-৫ ও র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া বিজিবিতেও বেশকিছু দিন দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

আারএম/এমবিআর/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :