গ্যাস চুরির অভিযোগে ফুড প্যালেসকে ৯ লাখ টাকা জরিমানা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:১১ পিএম, ২৩ অক্টোবর ২০১৮

রাজধানীর বাড্ডায় অবৈধভাবে তিতাস গ্যাসের সংযোগ নেয়ার অভিযোগে ফুড প্যালেস নামক একটি রেস্টুরেন্টকে ৯ লাখ টাকা জরিমানা করেছে দুদক। দুদক অভিযোগ কেন্দ্রে (হটলাইন-১০৬) এমন এক অভিযোগের ভিত্তিতে এ অভিযান চালানো হয়।

মঙ্গলবার মহাপরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী’র নির্দেশে দুদকের এনফোর্সমেন্ট ইউনিট এ অভিযান চালায়।

সহকারী পরিচালক রেজাউল করিম-এর নেতৃত্বে পুলিশসহ ছয় সদস্যের একটি টিম অভিযান চালায়। এছাড়া তিতাসের ভিজিল্যান্স-উত্তর বিভাগের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মো. শাহিদ হোসেন ও সহকারী প্রকৌশলী মো. নুরুন্নবী মোস্তফা কামাল অভিযানকালে উপস্থিত ছিলেন।

অভিযানকালে দুদক কর্মকর্তারা শাহজাদপুর বাসস্ট্যান্ডের পার্শ্ববর্তী ফুড প্যালেস নামক একটি রেস্টুরেন্টে তিতাস গ্যাসের অবৈধ সংযোগ নিয়ে ১২টি চুলায় গ্যাস চুরি ধরেন।

দুদক কর্মকর্তারা জানান, তিতাস গ্যাস কোম্পানির জোন-৮ (বাড্ডা শিল্প বাণিজ্য) এর আওতাধীন উক্ত রেস্টুরেন্টে প্রতি ঘণ্টায় ৪৯৫ ঘনফুট গ্যাস ব্যবহৃত হচ্ছে, যার মাসিক মূল্য গড়ে ৭০-৮০ হাজার টাকা। এভাবে রেস্টুরেন্টটিতে বিগত দুই বছরে লাখ লাখ টাকার গ্যাস চুরি হয়েছে মর্মে অভিযানকালে জানা যায়। তিতাস গ্যাসের দুর্নীতিবাজ এক শ্রেণির কর্মকর্তা-কর্মচারীর সহযোগিতায় এ দুর্নীতি ঘটছে বলে স্থানীয় জনগণের অভিযোগ। উক্ত এলাকায় আরও কিছু প্রতিষ্ঠানে বিপুল পরিমাণ গ্যাস চুরি হচ্ছে, দুদক টিমের অভিযানে আরও কিছু ঘটনা উদ্ঘাটিত হয়। অভিযানে ফুড প্যালেস রেস্টুরেন্টের সকল অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। এছাড়া দুদক টিমের উপস্থিতিতে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ কর্তৃক তাৎক্ষণিকভাবে উক্ত প্রতিষ্ঠানকে পৌনে ৯ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

এ অভিযান পরিচালনা প্রসঙ্গে এনফোর্সমেন্ট অভিযানের সমন্বয়কারী দুদক মহাপরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী বলেন, ‘গ্যাস সম্পদ চুরি অর্থনৈতিক অপরাধ। তিতাসের নিয়মিত ভিজিল্যান্সের অভাবে এসব অপরাধ ঘটছে। যারা এসব অপরাধের সহযোগী, দুদক সেসব কর্মকর্তাদের ওপর নজরদারি এবং আইনানুগ ব্যবস্থা নেবে।’

এমইউ/জেএইচ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :