যুক্তরাষ্ট্র থেকে আসবেন ৩২ পর্যবেক্ষক

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৪:৪৮ পিএম, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

অাসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু , অবাধ, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ হওয়ার অাশাবাদ ব্যক্ত করে বাংলাদেশে নিযুক্ত নতুন মার্কিন রাষ্ট্রদূত অার্ল রবার্ট মিলার জানিয়েছেন, নির্বাচনে যুক্তরাষ্ট্র থেকে ৩২ জন পর্যবেক্ষক বাংলাদেশে আসবেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সোমবার গণভবনে সৌজন্য সাক্ষাতে মিলার এ কথা জানান।

সাক্ষাত শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম। সাক্ষাতে নির্বাচন ছাড়াও রোহিঙ্গা সমস্যা ও পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

রোহিঙ্গা সঙ্কট নিয়ে রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলার বলেন, বাস্তুচ্যুত মিয়ানমারের নাগরিকদের তাদের নিজ বাসভূমে ফেরত পাঠাতে দেশটির রাখাইনে উপযুক্ত পরিবেশ তৈরি করতে হবে। রোহিঙ্গা সঙ্কটে বাংলাদেশকে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে যুক্তরাষ্ট্র।

বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার সম্পর্কের বিষয়ে রবার্ট মিলার বলেন, দুই দেশের বিদ্যমান দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক এখন অত্যন্ত শক্তিশালী। বাংলাদেশের জ্বালানি খাতে যুক্তরাষ্ট্র সহযোগিতা করতে আগ্রহী। তার দেশ বাংলাদেশের শিক্ষা খাতকে আরও উৎসাহিত করতে চায়।

বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ইতিহাস ও সংগ্রাম সম্পর্কে নতুন রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, গত ৪৭ বছরে বাংলাদেশে একমাত্র তার সরকারের পূর্ণ মেয়াদ শেষে ২০০১ সালে শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর হয়।

আগামী সাধারণ নির্বাচনের প্রাক্কালে সহিংস ঘটনার বিষয়ে শেখ হাসিনা বলেন, সম্প্রতি তার দল আওয়ামী লীগের দুই কর্মীকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। দলের নেতাকর্মীদের এসব বিষয়ে ধৈর্য ধরতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে রাষ্ট্রদূতকে জানান তিনি।

৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসতে পারলে আগামী অর্থবছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৮ শতাংশ অর্জনে তার সরকার সক্ষম হবে বলেও মন্তব্য করেন বাংলাদেশের সরকারপ্রধান।

সৌজন্য সাক্ষাতে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব নজিবুর রহমান, সামরিক সচিব মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন, কার্যালয় সচিব সাজ্জাদুল হাসান উপস্থিত ছিলেন।

এফএইচএস/জেডএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]