পাঠ্যবইয়ে ভোক্তা অধিকার অন্তর্ভুক্তির পরামর্শ বাণিজ্যমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৩৯ পিএম, ১১ এপ্রিল ২০১৯
ফাইল ছবি

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, ভোক্তা অধিকারের বিষয় পাঠ্যবইয়ে অন্তর্ভুক্ত হলে সচেতনতা বাড়বে। শিক্ষার্থীরা ছাত্রজীবন থেকেই ভোক্তার অধিকার সম্পর্কে জানতে পারবে। ফলে বাস্তব জীবনে তা কাজে লাগানোর সুযোগ পাবে।

বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) রাজধানীর বিদ্যুৎ ভবনের বিজয় হলে কনজুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) আয়োজিত জেলা প্রতিনিধিদের সম্মেলন ও ‘ভোক্তা অধিকার শক্তিশালী করণ’ শীর্ষক সেমিনারে তিনি এ কথা বলেন।

টিপু মুনশি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার ভোক্তা অধিকার প্রতিষ্ঠা এবং নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে গুরুত্ব সহকারে কাজ করছে। সরকার ইতিমধ্যে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর এবং নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ প্রতিষ্ঠা করেছে। দেশব্যাপী এখন কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। বাজারে অভিযান পরিচালনা করে অপরাধীদের জেল-জরিমানা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘ভোক্তারা এ বিষয়ে সচেতন হলে বেশি ফল পাওয়া যাবে। ভোক্তাদের সচেতন করতে প্রচারণা চালানো হচ্ছে, এতে ভালো ফল পাওয়া যাচ্ছে। ভোক্তাদের সংগঠন কনজুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) এ জন্য দেশব্যাপী কাজ করছে। ক্যাবের কার্যক্রম আরও জোরদার করা প্রয়োজন।’

মন্ত্রী বলেন, মানুষ যাতে প্রতারিত না হন, সে বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে। নিজের অধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করতে হবে। ব্যবসায়ী ও ভোক্তা উভয়ে যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হন সে জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। দেশের মানুষের আয় বৃদ্ধি পেয়েছে, মানুষের ক্রয়ক্ষমতা বেড়েছে। ক্রেতারা যাতে প্রতারিত না হয় সেজন্য নিজ নিজ অবস্থান থেকে এ বিষয়ে অবদান রাখতে হবে।

ক্যাব সভাপতি ও সাবেক সচিব গোলাম রহমানের সভাপতিত্বে সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আহম্মদ একরামুল্লাহ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাণিজ্য সচিব মো. মফিজুল ইসলাম, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম লস্কর এবং নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মাহফুজুল হক।

এমইউএইচ/এএইচ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :