আমি বড় অসহায়, আমাকে সাহায্য করুন

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১১:০৬ এএম, ১৪ এপ্রিল ২০১৯

রাজধানীর শাহবাগের ফুল মার্কেটের সামনের রাস্তায় একটি প্লাস্টিকের চেয়ারে ছিল ছোট্ট একটি মেয়ে। বয়স আনুমানিক ৮-৯ বছর। কালো রঙের একটি জামা পরিহিত শিশুটির মাথায় গোলাপি রঙের একটি টুপি।

হঠাৎ করে দেখলে মনে হবে চেয়ারে আসন গেড়ে বসে আছে। হাত দুটিও পেছনের দিকে লুকিয়ে রাখা। কিন্তু একটু খেয়াল করলেই দেখা যায় শিশুটির দুই পা ও দুই হাত নেই। শিশুর গলায় একটি প্লাকার্ড ঝুলানো। তাতে লেখা রয়েছে আমি বড় অসহায়, আমাকে সাহায্য করুন।

child-3.jpg

বাংলা নববর্ষ ১৪২৬ কে বরণ করে নিতে রোববার কাকডাকা ভোর থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস, সোহরাওয়ার্দী ও রমনা উদ্যানে মানুষের ঢল নামে। রাজধানীর বিভিন্ন বিভিন্ন এলাকা থেকে নগরবাসীর অনেকেই পরিবার পরিজন নিয়ে ঘুরতে আসেন।

নিরাপত্তার স্বার্থে বিভিন্ন রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ থাকায় পায়ে হেঁটে আসতে হচ্ছে অনেককে। শিশুপার্কের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় চেয়ারে বসে থাকে ছোট্ট মেয়েটিকে দেখে সবার হৃদয়ে বেদনায় কেঁদে ওঠে।

child-3.jpg

সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা গেছে, অনেকেই পথ চলতে গিয়ে শিশুটিকে দেখে থমকে দাঁড়ায়। সবাই শিশুটিকে সাধ্যমত আর্থিক সাহায্য করে।

শিশুটির নাম জিজ্ঞাসা করলে অনেকক্ষণ চুপ থাকার পর একপর্যায়ে জানায় তার নাম ফরিদা। বাবা-মার পরিচয় জানতে চাইলেও চুপ করে থাকে শিশুটি।

এমইউ/জেএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]