উত্তাপ আরও ছড়াবে বৈশাখ

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:০৩ পিএম, ২৫ এপ্রিল ২০১৯

সারাদেশে তাপপ্রবাহ চলছে। আজ বৃহস্পতিবার দেশে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ফরিদপুরে ৩৭ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। রাজধানীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, আগামী কয়েকদিন মৃদু তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে।

গরম আবহাওয়ার কারণে রাজধানীসহ সারাদেশের মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হচ্ছে। ঘরের বাইরে বের হলেই প্রখর রোদের তাপে শরীর পুড়ে যাচ্ছে; ঘেমে অস্থির হচ্ছে ছোটবড় সকলে। গরমের কবল থেকে রক্ষা পেতে অনেকেই ছাতা মাথায় রাস্তায় চলাফেরা করছেন। গরমে তৃষ্ণা মেটাতে বিভিন্ন জুস ও শরবতের দোকানে চাহিদা বেড়েছে। মৃদু তাপপ্রবাহের কারণে রাস্তাঘাটে বিক্রি হওয়া পানি খেয়ে অনেকেই ডায়রিয়াসহ বিভিন্ন ধরনের পেটের পীড়ায় আক্রান্ত হচ্ছেন।

Heat-weather

আজ বৃহস্পতিবার ১২ বৈশাখ। বৈশাখের ১২টি দিন পেরিয়ে গেলেও বৃষ্টির দেখা নেই। বৈশাখ মাস আসার পর বৃষ্টির দেখা নেই বললেই চলে। এই সুযোগে সূর্য প্রচণ্ড উত্তাপ ছড়াচ্ছে। বৈশাখের গরম শুধু রাজধানীতেই নয়, দেশজুড়েই পড়েছে।

আবহাওয়া অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, সারা দেশের ওপর দিয়ে মৃদু দাবদাহ বয়ে যাচ্ছে। এই দাবদাহ আরও কয়েক দিন অব্যাহত থাকতে পারে। তবে আগামী তিন দিনের মধ্যে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে।

Heat-weather

আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক সামছুদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘আগামীকাল শুক্রবারও তাপমাত্রা আরও কিছুটা বৃদ্ধি পেতে পারে। এ অবস্থায় সাগরে নিম্নচাপ সৃষ্টি হয়ে থাকে। এ মাসের শেষ দিকে মধ্য বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ সৃষ্টি হতে পারে। নিম্নচাপটি শক্তিশালী হয়ে ২৮, ২৯ ও ৩০ এপ্রিলের পর ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে। এরপর সেটি আগামী ৩ মে বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলে আঘাত হানতে পারে। তবে তার গতিপথ কী হতে পারে, সে সম্পর্কিত তথ্য নিম্নচাপ সৃষ্টি হলে পরে হয়তো জানা যাবে।’

এমইউ/এসআর/পিআর