বিদ্যুৎ বিতরণ সংস্থাকে ডিজিটালাইজ করার বিকল্প নেই

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৫২ পিএম, ২৫ এপ্রিল ২০১৯

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, ‘মানসম্পন্ন ও নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সেবা তাৎক্ষণিক দেয়ার জন্য বিতরণ সংস্থাগুলোকে ডিজিটালাইজ করার বিকল্প নেই। অনলাইন সেবা সবার কাছে পৌঁছে দিতে কর্মকর্তাদের আরও আগ্রহী হতে হবে। মন মানসিকতার পরিবর্তন করে জনগণের কাছে গিয়ে তাদের সেবা দেয়া আবশ্যক।’

ঢাকার একটি হোটেলে গতকাল (বুধবার) ঢাকা পাওযার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি (ডিপিডিসি) এবং প্রভেনসিয়াল ইলেকট্রিসিটি অথরিটি (পিইএ) থাইল্যান্ডের মধ্যে ম্যানেজমেন্ট প্র্যাকটিস ও টেকনোলজি বিনিময়ের উদ্দেশে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

নসরুল হামিদ বলেন, ‘নির্ভরযোগ্য বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী মূল্যে এবং নিরবচ্ছিন্ন দেয়ার চ্যালেঞ্জ নিয়ে বিদ্যুৎ বিভাগ কাজ করছে। সিদ্ধান্ত দ্রুত নিতে হবে। প্রযুক্তির পেছনের মানুষদেরও স্মার্ট হতে হবে।’

সমঝোতায় সই করেন ডিপিডিসির সচিব জয়ন্ত কুমার শিকদার ও পিইএ-এর উপগভর্নর ওয়ালপ কিট্টিউইয়াট।

সমঝোতা স্মারকে আছে- ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজির পরিকল্পনা ও ডিজাইনের ক্ষেত্রে কর্পোরেট পর্যায়ে যোগাযোগ, নেটওয়ার্ক ট্রান্সফরমেশন, সমন্বিত যোগাযোগ ব্যবস্থা, বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থায় অপারেশন অ্যান্ড মেইনটেনেন্স এবং জিওগ্রাফিক্যাল ইনফরমেশন সিস্টেম (জিআইএস)।

প্রশিক্ষণের মধ্যে অপারেশন অ্যান্ড মেইনটেনেন্সের ক্ষেত্রে সেফটি, স্ট্যান্ডার্ড ও মনিটরিং, যোগাযোগ ব্যবস্থার জন্য আর্থিং/গ্রাউন্ডিং সিস্টেম, সম্পদ ব্যবস্থাপনা, (ঘ) নেটওয়ার্ক আপরেশন সেন্টার এবং যোগাযোগের ক্ষেত্রে উত্তম চর্চা।
এ ছাড়া যৌথ উন্নয়ন স্মারকে রয়েছে আইসিটি এবং ডাটা সেন্টার, সঞ্চালন, পরিকল্পনা ও পরিচালন, বিতরণ ব্যবস্থা অটোমেশন বিষয়ক সহযোগিতার বিষয়।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে ডিপিডিসির পরিচালনা বোর্ডের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শফিকউল্লাহ ও ডিপিডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালনা ইঞ্জিনিয়ার বিকাশ দেওয়ান উপস্থিত ছিলেন।

এমইউ/এনডিএস/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :